kalerkantho

সোমবার । ৩ মাঘ ১৪২৮। ১৭ জানুয়ারি ২০২২। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

কোনো কিছুই নিজের ইচ্ছায় হয় না

যুক্তরাষ্ট্রে আয়োজিত ‘ঢালিউড অ্যাওয়ার্ড’-এ অংশ নেওয়ার জন্য আজ দেশ ছাড়ার কথা ছিল শবনম বুবলীর। কিন্তু করোনার নতুন ‘হেলথ অ্যালার্ট’-এর কারণে আছেন সিদ্ধান্তহীনতায়। এই প্রসঙ্গ ও সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয়ে বুবলীর সঙ্গে কথা বলেছেন সুদীপ কুমার দীপ

৩০ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কোনো কিছুই নিজের ইচ্ছায় হয় না

শবনম বুবলী

যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার কী হলো?

গতকাল পর্যন্তও সিদ্ধান্ত ছিল আজ (মঙ্গলবার) ফ্লাইটে উঠব, কিন্তু হঠাৎ শুনলাম সেখানে ‘হেলথ অ্যালার্ট’ জারি করা হয়েছে। করোনা নাকি বেড়েছে। এই অবস্থায় আমি সেখানে যেতে পারলেও সময়মতো আসতে পারব কি না সে ব্যাপারে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল যদি বন্ধ হয়ে যায়, তখন কিছু করার থাকবে না। দেশে অনেকগুলো ছবির শুটিং চলছে। সেসব ছবির নির্মাতা ও প্রযোজকদের ক্ষতির মুখে ফেলতে রাজি নই।

 

জীবনে প্রথমবার সিলেটে গিয়েছেন শুটিং করতে। কেমন হলো ‘কয়লা’র শুটিং?

আগে থেকেই সিলেটের সৌন্দর্য সম্পর্কে শুনেছি, জেনেছি। এবার নিজের চোখে দেখলাম। আমরা জাফলংয়ে শুটিং করেছি বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত এলাকায়। পুরো ইউনিট শুটিংয়ের সময়টা উপভোগ করেছে। আমার জন্মদিনও পালন হয়েছে সেখানে।

 

‘কয়লা’য় আপনাকে কিভাবে দেখা যাবে?

বলতে পারেন মনের মতো একটা চরিত্র পেয়েছি। আগে কখনো গ্রামের মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করিনি। ‘কয়লা’য় আমার নাম মায়া, একদম গ্রামের খেটে খাওয়া চরিত্র।

 

ছবিতে বরাবরই আপনার অভিনীত চরিত্রের নাম থাকে ‘মায়া’। এবার নাকি ‘মায়া’ নামে একটি ছবিও করছেন?

কেন জানি পরিচালকরা ছবিতে আমার নাম রাখেন মায়া। এর আগে শাহাদাৎ হোসেন লিটনের ‘অহংকার’-এ মায়া হয়েছিলাম। এবার ‘কয়লা’তে হলাম। জসিম উদ্দিন জাকিরের ‘মায়া’তেও হয়তো একই নামে দেখা যেতে পারে।

 

এখন নিরব ও রোশানের সঙ্গে বেশি দেখা যাচ্ছে আপনাকে। ‘লিডার—আমিই বাংলাদেশ’-এর পর শাকিব খানের সঙ্গে আর ছবি করছেন না কেন?

আসলে কোনো কিছুই তো নিজের ইচ্ছায় হয় না। গল্প এবং চরিত্র পছন্দ না হলে আমি এখন থেকে আর ছবি করতে চাই না। নিরবের সঙ্গে যে তিনটি ছবি করছি, সবগুলোতে আমার চরিত্রের গুরুত্ব অনেক। রোশানের সঙ্গে ছবিগুলোও ভালো নির্মাতা ও ভালো বাজেটের। মনের মতো চরিত্রও পেয়েছি। মাঝখানে শাকিব খানের সঙ্গে বেশ কয়েকটি ছবির প্রস্তাব পেয়েছিলাম, কিন্তু পছন্দ হয়নি। তা ছাড়া আমি সবার সঙ্গে কাজ করতে চাই। নইলে ক্যারিয়ার গোছানোটা হয়ে উঠবে না।



সাতদিনের সেরা