kalerkantho

সোমবার । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৯ নভেম্বর ২০২১। ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

প্রতিবছর দুর্গাপূজার সময় একই ঘটনা ঘটছে

কয়েক দিন ধরে অভিনেতা আলমগীরের নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চালানো হচ্ছে সাম্প্রদায়িক প্রপাগান্ডা। অভিনেতার অভিযোগ, চার বছর ধরে দুর্গাপূজা এলেই তাঁর নামে ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট খুলে নানা ধরনের পোস্ট দেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে আলমগীরের সঙ্গে কথা বলেছেন সুদীপ কুমার দীপ

১৯ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রতিবছর দুর্গাপূজার সময় একই ঘটনা ঘটছে

আবারও আপনার নামে ফেসবুকে সাম্প্রদায়িক প্রপাগান্ডা চালানো হচ্ছে....

এটা নিয়ে আর কী বলব! এর মধ্যে চলচ্চিত্রে ৫০ বছর পার করেছি। ’৬৯ সাল থেকে ছাত্রলীগ করি। এরপর যুবলীগ শেষে এখন আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে আছি। এই দীর্ঘ সময়ে আমার আশপাশের প্রতিটি মানুষ জানেন, আমি অসাম্প্রদায়িক মনমানসিকতার। সব সময় বিশ্বাস করি ধর্ম যার যার, উৎসব সবার। কতবার যে দুর্গাপূজায় আনন্দ করতে কলকাতায় গিয়েছি তার ঠিক নেই। অথচ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমার ভাবমূর্তি নষ্ট করতে চান কেউ কেউ। তাঁদের লাভ কী—সেটাও তো জানি না।

 

অপপ্রচার কারা করছেন বলে মনে করেন?

আমি যদি তাঁদের চিনতে পারতাম তাহলে তো সরাসরি প্রশাসনে অভিযোগ করতাম। তবে যাঁরাই এই কাজ করছেন তাঁরা সুযোগসন্ধানী। আমি ১০ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া অভিনেতা। পেয়েছি আজীবন সম্মাননাও। দেশের জনগণের কাছে আমার গ্রহণযোগ্যতা আছে। অনেকে হয়তো মনে করছেন, আমার নামে কোনো কিছু রটিয়ে দিলে তার ফল দ্রুত আসবে।

 

এর আগেও কয়েকবার এমন পরিস্থিতির শিকার হয়েছিলেন...

২০১৭ সালে প্রথম এই ঘটনা ঘটে। তখনই প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছিলাম। এরপর এক বছর আর কোনো কিছু চোখে পড়েনি। তবে ঠিক পরের বছর দুর্গাপূজার সময় আবারও আমার নামে অপপ্রচার চালানো শুরু হলো। আর এর পর থেকে তো প্রতিবছর দুর্গাপূজার সময় দেখছি একই ঘটনা ঘটছে!

 

এবার কি আপনি প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন?

এখনো হইনি। আমার মনে হয় প্রশাসনেরই উচিত নিজেদের তাগিদে বিষয়টি খতিয়ে দেখার। একজন সিনিয়র অভিনেতা হিসেবে তো এটুকু আশা করতেই পারি, আর কখনো যেন আমার নামে ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বা কোনো নামসর্বস্ব ইউটিউব চ্যানেল থেকে এই ধরনের বাজে কাজ কেউ না করেন সে বিষয়ে প্রশাসন যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।

 

দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে আপনার পরামর্শ কী?

সবাইকে আরো সচেতন হতে হবে। গুজবে কান দেওয়াটা ঠিক হবে না। সত্য-মিথ্যা যাচাই করে তবেই যেকোনো মন্তব্য করা উচিত। সেই সঙ্গে সরকারের পাশেও থাকতে হবে সবার।



সাতদিনের সেরা