kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ১ ডিসেম্বর ২০২০। ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

প্রতিদ্বন্দ্বীর ৫০

রংবেরং ডেস্ক   

২৭ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রতিদ্বন্দ্বীর ৫০

১৯৭০ সালের ২৭ অক্টোবর মুক্তি পেয়েছিল সত্যজিৎ রায়ের ‘প্রতিদ্বন্দ্বী’। আজ ৫০ বছর পূর্ণ হয়েছে কালজয়ী ছবিটির। পরিচালকের বিখ্যাত ‘কলকাতা ট্রিলজি’র প্রথম কিস্তি ‘প্রতিদ্বন্দ্বী’, তৈরি হয়েছিল সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে। ১৯৭০-এর দশকের শুরুতে যখন পশ্চিম বাংলায় নকশাল আন্দোলন তীব্র তখন এই ছবি অন্য এক মাত্রা যোগ করেছিল। ছবির গল্প বেকার যুবক সিদ্ধার্থকে নিয়ে। যার চোখ দিয়ে পরিচালক সে সময়ের কলকাতার সামাজিক অবস্থা তুলে ধরেন। এই ছবি দিয়েই অভিষেক হয় ধৃতিমান চ্যাটার্জির। প্রথম ছবিতেই সত্যজিৎ আর ‘প্রতিদ্বন্দ্বী’র মতো ছবি পাওয়া যেকোনো অভিনেতার জন্যই স্বপ্নের মতো। ‘প্রতিদ্বন্দ্বী’র সবচেয়ে বিখ্যাত দুই দৃশ্য—দুটি সাক্ষাৎকার। শুরুতে ও শেষের সাক্ষাৎকারের দৃশ্যের জন্যই ছবিটি অন্য মাত্রা পেয়েছে। ধৃতিমান বলছেন, পরে দৃশ্য দুটি নিয়ে এত আলোচনা, বিশ্লেষণ হলেও শুটিংয়ের সময় এসব তাঁদের মাথায় ছিল না। ‘আমি খুব বেশি বিশ্লেষণে বিশ্বাসী নই, তাই কাজ করার সময় তত ভাবি না। তখন ছবির সামগ্রিক কাঠামোয় এই দৃশ্যের গুরুত্ব কতটা, বা তার কী প্রভাব পড়তে পারে, এসব নিয়ে ভাবার অবকাশ থাকে না,’ বলেন ধৃতিমান। ‘প্রতিদ্বন্দ্বীর’ বেশির ভাগই আউটডোর দৃশ্য, যা সেই সময় ছিল বড় চ্যালেঞ্জ। এ প্রসঙ্গে অভিনেতা বলেন, ‘আউটডোর শটের ক্ষেত্রে পরিকল্পনা সব সময় কাজে লাগে না, অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নিতে হয়। তবে আমরা যখন কাজ করেছি তখন রাস্তাঘাটে এত ভিড় জমত না।’

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা ও এই সময়

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা