kalerkantho

বুধবার । ৫ কার্তিক ১৪২৭। ২১ অক্টোবর ২০২০। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সৃজিতের সিরিজে থাকছেন না বাংলাদেশের কেউ

জানেনই না চঞ্চল চৌধুরী

দাউদ হোসাইন রনি   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



জানেনই না চঞ্চল চৌধুরী

তিন বছর পার করে চারে পা রাখল ভারতীয় বাংলা ওয়েব প্ল্যাটফর্ম ‘হইচই’। এ উপলক্ষে শুক্রবার সন্ধ্যায় এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন হইচইয়ের দুই সহপ্রতিষ্ঠাতা মহেন্দ্র সোনি ও বিষ্ণু মোহতা। সিজন ফোরে নতুন ২৫টি ওয়েব সিরিজের ঘোষণা দেন তাঁরা। সিরিজগুলো বানাবেন ভারত ও বাংলাদেশের নির্মাতারা। এক কোটি ৩০ লাখ গ্রাহকের ওয়েব প্ল্যাটফর্মটিতে নতুন করে যুক্ত হয়েছেন ভারতের নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি, কমলেশ্বর মুখার্জিসহ বাংলাদেশের আশফাক নিপুণ, মিজানুর রহমান আরিয়ান, সৈয়দ আহমেদ শাওকি, তানিম নূর, কৃষ্ণেন্দু চট্টোপাধ্যায়ের মতো নির্মাতারা। নতুন সিজনে দেখা যাবে বাংলাদেশের অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী, অপূর্ব, পার্থ বড়ুয়া, ইন্তেখাব দিনার, সানজিদা প্রীতি ও মনোজ প্রামাণিককে।

২৫টি সিরিজেরই পোস্টার প্রকাশ করা হয় সেদিন। উল্লেখযোগ্য সিরিজের মধ্যে রয়েছে ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’, ‘তকদির’, ‘দেবদাস ও একটি খুনের গল্প’, ‘একেন বাবু ৪’, ‘হানি মানি ২’, ‘ভালো থাকিস বাবা’, ‘ব্যোমকেশ ৬’ ও ‘চরিত্রহীন ৩’।

ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে নতুন সিরিজের ঘোষণা দেওয়ার পরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও টুইটারে অভিন্ন একটি পোস্ট দেন সৃজিত মুখার্জি। বাংলাদেশের নাজিম উদ্দিনের আলোচিত থ্রিলার উপন্যাস ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’ অবলম্বনে সিরিজটি নির্মাণ করছেন তিনিই। সৃজিত লেখেন, ‘হইচইয়ের সঙ্গে আমার প্রথম কাজ এটি। বাংলাদেশে সেখানকার অভিনয়শিল্পীদের নিয়ে সত্যি শুটিং করতে চেয়েছিলাম। দুর্ভাগ্য, করোনার কারণে সেটা আর সম্ভব হচ্ছে না। যা হোক, মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের অসাধারণ এই উপন্যাসের স্বাদ অক্ষুণ্ন রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করব।’

সৃজিতের এই টুইটে মন ভেঙেছে বাংলাদেশের অনেক অভিনয়শিল্পীর। সিরিজটির প্রধান তিনটি চরিত্রে অভিনয় করার কথা ছিল চঞ্চল চৌধুরী, মোশাররফ করিম ও অনির্বাণ চট্টোপাধ্যায়ের। গল্পের নায়িকা মুসকান জুবেরির চরিত্রে শোনা গিয়েছিল জয়া আহসান, পূর্ণিমা ও পরীমণির নাম। এ ছাড়া শাহেদ আলীসহ বাংলাদেশের আরো অনেকের অভিনয় করার কথা ছিল।

এ বিষয়ে কথা হয় চঞ্চল চৌধুরীর সঙ্গে, যাঁকে প্রধান চরিত্র করে আরেকটি সিরিজ ‘তকদির’ বানাচ্ছে হইচই। ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’ ও সৃজিতের টুইট প্রসঙ্গে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, ‘এটি ঠিক, প্রাথমিকভাবে আমার সঙ্গে এ সিরিজটিতে অভিনয়ের চুক্তি হয়েছিল। করোনা পরিস্থিতিতে অনেক কিছুই বদলে যাচ্ছে। হয়তো বাংলাদেশে শুটিং করা সম্ভব হবে না; কিন্তু এখানকার অভিনয়শিল্পীরা অভিনয় করতে পারবেন না, সে ব্যাপারে আমি নিশ্চিত নই। সৃজিতের পোস্টটি একজন আমাকে দেখিয়েছেন। তবে আমাকে এখনো এ ব্যাপারে কিছু জানানো হয়নি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা