kalerkantho

মঙ্গলবার । ৭ আশ্বিন ১৪২৭ । ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৪ সফর ১৪৪২

নিষিদ্ধ হতে পারে

শাপলা মিডিয়া

রংবেরং প্রতিবেদক   

১১ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ১৮ সংগঠনের হুঁশিয়ারি না শুনে ৬ আগস্ট এফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাবে ‘আগস্ট ১৯৭৫—অ্যান আনটোল্ড স্টোরি’র টিজ-ার প্রকাশের অনুষ্ঠানে জায়েদকে আমন্ত্রণ জানায় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া। জায়েদ খান সেখানে উপস্থিত হয়ে বক্তব্যও রাখেন। জায়েদের উপস্থিতি ও বক্তব্য সংগঠনগুলোর নজরে এলে গতকাল এক জরুরি বৈঠকে বসেন নেতারা। আপাতত কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হচ্ছে শাপলা মিডিয়াকে। তবে যৌক্তিক কারণ দেখাতে না পারলে প্রতিষ্ঠানটিকে নিষিদ্ধ করা হতে পারে বলে জানান পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন। তিনি বলেন, ‘শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান যে ধরনের দাম্ভিকতা নিয়ে কথা বলেন সেটা ঠিক নয়। তিনি বলেছেন জায়েদ খানকে নিয়ে একাধিক ছবি নির্মাণ করবেন। ১৮ সংগঠনের সিদ্ধান্ত মানেন না। সংগঠনগুলোর কাজ শুধু নিষিদ্ধ করা। এসব কথা শোনার পরে তো আমাদের পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।’

এদিকে সেলিম খান বলেন, ‘আমার কাছে এখনো কোনো চিঠি আসেনি। যদি আসে তাহলে আমি যুক্তি দেখাব। দেশে এখন একমাত্র শাপলা মিডিয়াই ছবি বানাচ্ছে। বেশির ভাগ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানই ফাঁকা আওয়াজ তুলছে। এখন শাপলা মিডিয়াকে যদি সংগঠনগুলো নিষিদ্ধ করে সে দায় কার? অনেকে এই প্রতিষ্ঠানের ছবিতে কাজ করেন। তাঁদের পরিবারের দায়িত্ব কে নেবে! নিশ্চয়ই সংগঠনগুলো বিষয়টি ভেবে দেখবে।’

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে যাত্রা শুরু করা শাপলা মিডিয়া এর মধ্যে ‘আমি নেতা হবো’, ‘চিটাগাইংগ্যা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়া’, ‘ক্যাপ্টেন খান’, ‘শাহেনশাহ’ ও ‘বয়ফ্রেন্ড’ নির্মাণ করেছে। নির্মাণাধীন আছে ‘বিক্ষোভ’, ‘কমান্ডো’, ‘গ্যাংস্টার’, ‘৭১-এর ইতিহাস’ ও ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’। মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘বিদ্রোহী’ ও ‘আগস্ট ১৯৭৫—অ্যান আনটোল্ড স্টোরি’।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা