kalerkantho

সোমবার । ৬ আশ্বিন ১৪২৭ । ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৩ সফর ১৪৪২

বিদায় সুরের জাদুকর

১০ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



বিদায় সুরের জাদুকর

আলাউদ্দিন আলী [১৯৫২-২০২০] জন্ম : টঙ্গিবাড়ী, মুন্সীগঞ্জ প্রথম গান : ও আমার বাংলা মা

গানের মাধ্যমেই তিনি বেঁচে থাকবেন

রুনা লায়লা

আরেকজন মেধাবী ও গুণী সংগীত পরিচালক ও মিউজিশিয়ানকে হারালাম। আলাউদ্দিন আলী আমাদের ছেড়ে চিরশান্তির স্থানে চলে গেলেন। তাঁর হৃদয়কাড়া মেলোডি সুর ও সংগীত সারা জীবন মানুষের মনে স্থান করে নেবে। গানের মাধ্যমেই তিনি বেঁচে থাকবেন আজীবন। আমার সুযোগ হয়েছে তাঁর মতো গুণীর সঙ্গে কাজ করার। আল্লাহ তাঁকে শান্তিতে রাখুন এবং জান্নাতবাসী করুন। 

 

কথা বলার জন্য উদ্গ্রীব হয়ে ছিলেন

মোহাম্মদ রফিকুজ্জামান

পরশুই কথা হলো তাঁর সঙ্গে। ফোন দিয়েই কেঁদে ফেললেন, ‘তোমার মতো আপন আর কেউ নেই। তুমি আমার জন্য যা করেছ, অন্য কেউ করেনি।’ বললাম, ফোনে বেশি কথা বলতে হবে না। শরীর আরো খারাপ করবে। তিনি উল্টো বললেন, আমার সঙ্গে কথা বললে নাকি তাঁর ভালো লাগে। মানুষের শেষ সময় এলে হয়তো সে ভেতর থেকে অনুধাবন করতে পারে। আলী ভাইও পেরেছিলেন। অনুনয় করে বলেছিলেন একবার দেখতে যাওয়ার জন্য। সেটা আর হলো না। আলী ভাইয়ের সঙ্গে আমার প্রথম গান ছিল ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’ ছবির ‘মা জননী’। এরপর চলচ্চিত্রে আর কাজ হয়নি। নব্বইয়ের দশকে এসে ‘চরম আঘাত’ দিয়ে দুজনের একসঙ্গে ফেরা। এই ছবির ‘ভালোবাসা যতো বড় জীবন ততো বড় নয়’ গানটা প্রচুর জনপ্রিয়তা পায়। এত বড় সুরসম্রাট আমরা আর পাব না।

 

সারা জীবনের অভিভাবক হারালাম

 ফোয়াদ নাসের বাবু

আমি এখন হাসপাতালে। স্মৃতিচারণা করার মতো অবস্থায় নেই। কত দিনের স্মৃতির কথা বলব। আমার ক্যারিয়ার শুরু তাঁর সহকারী হিসেবে। হাতে-কলমে অনেক কিছু শিখেছি। বছরের পর বছর একসঙ্গে কাজ করেছি। একটা সাধারণ কথাকে কিভাবে অসাধারণ করে সুর করতে হয় সেটা তাঁর চেয়ে আর কেউ জানে বলে মনে হয় না। সারা জীবনের জন্য অভিভাবক হারালাম।

 

আলাউদ্দিন আলীর সুরে জনপ্রিয় ২০ গান

►  আছেন আমার মোক্তার আছেন আমার বারিস্টার

সৈয়দ আব্দুল হাদী

গোলাপী এখন ট্রেনে [১৯৭৯]

 

►  হায়রে কপাল মন্দ চোখ থাকিতে অন্ধ

সাবিনা ইয়াসমিন

গোলাপী এখন ট্রেনে [১৯৭৯]

 

►  কেউ কোনো দিন আমারে তো কথা দিল না

সৈয়দ আব্দুল হাদী

সুন্দরী [১৯৭৯]

 

►  প্রথম বাংলাদেশ, আমার শেষ বাংলাদেশ

শাহনাজ রহমতুল্লাহ

 

►  বন্ধু তিন দিন তোর বাড়ি গেলাম দেখা পাইলাম না

রুনা লায়লা

কসাই [১৯৮০]

 

►  একবার যদি কেউ ভালোবাসতো

সৈয়দ আব্দুল হাদী

জন্ম থেকে জ্বলছি [১৯৮১]

 

►  দুঃখ ভালোবেসে প্রেমের খেলা খেলতে হয়

সাবিনা ইয়াসমিন

জন্ম থেকে জ্বলছি [১৯৮১]

 

►  জন্ম থেকে জ্বলছি মাগো

সৈয়দ আব্দুল হাদী

জন্ম থেকে জ্বলছি [১৯৮১]

 

►  এমনও তো প্রেম হয়, চোখের

জলে কথা কয়

সৈয়দ আব্দুল হাদী

দুই পয়সার আলতা [১৯৮২]

 

►  হয় যদি বদনাম হোক আরো

জাফর ইকবাল

বদনাম [১৯৮৪]

 

►  সুখে থাকো, আমার নন্দিনী হয়ে কারও ঘরনি

জাফর ইকবাল

 

►  শত জনমের স্বপ্ন তুমি আমার জীবনে এলে

সাবিনা ইয়াসমিন

রাজলক্ষ্মী শ্রীকান্ত [১৯৮৭]

 

►  ভেঙেছে পিঞ্জর মেলেছে ডানা

এন্ড্রু কিশোর

ভাই বন্ধু [১৯৮৭]

 

►  যে ছিল দৃষ্টির সীমানায়

শাহনাজ রহমতুল্লাহ

 

►  পারি না ভুলে যেতে, স্মৃতিরা মালা গেঁথে

শাহনাজ রহমতুল্লাহ

►  সূর্যোদয়ে তুমি, সূর্যাস্তেও তুমি আমার বাংলাদেশ

সৈয়দ আব্দুল হাদী

 

►  যেটুকু সময় তুমি থাকো কাছে, মনে হয় দেহে প্রাণ আছে

সাবিনা ইয়াসমিন ও আগুন

শত জনমের প্রেম [১৯৯৭]

 

►  সবাই বলে বয়স বাড়ে, আমি বলি কমে রে

রথীন্দ্রনাথ রায়

 

►  আমায় গেঁথে দাওনা মাগো, একটা পলাশ ফুলের মালা

রুনা লায়লা

 

►  ভালোবাসা যতো বড় জীবন ততো বড় নয়

কুমার শানু, মিতালী মুখার্জি

চরম আঘাত [১৯৯৪]

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা