kalerkantho

শুক্রবার । ২০ চৈত্র ১৪২৬। ৩ এপ্রিল ২০২০। ৮ শাবান ১৪৪১

কিনে নেওয়া পুরস্কার

রংবেরং ডেস্ক   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিনে নেওয়া পুরস্কার

উইকিপিডিয়ায় ‘গলি বয়’-এর পাশে এডিট করে ‘পেইড অ্যাওয়ার্ড’ লিখে দেওয়া হয়

৬৫তম ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড জয়ের পর প্রশংসার পাশাপাশি সমালোচনাও কম হচ্ছে না ‘গলি বয়’ নিয়ে। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল সমালোচনা চলছে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার নিয়ে। ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের পোস্টের পাশাপাশি নানা ধরনের ট্রল ঘুরে বেড়াচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। ‘গলি বয়’ নয়, ‘আর্টিকল ১৫’, ‘সুপার ৩০’ ও ‘কেশরি’ ছবির পক্ষে সবাই। অনেকেই আবার ‘গলি বয়’-এর পুরস্কার প্রাপ্তিকে অর্থের বিনিময়ে পাওয়া পুরস্কার বলছেন। শনিবার পুরস্কার প্রাপ্তির পর একজন ক্ষুব্ধ ভক্ত উইকিপিডিয়ায় ফিল্মফেয়ারের পৃষ্ঠা সম্পাদনা করে ‘গলি বয়’-এর নামের পাশে ‘পেইড অ্যাওয়ার্ড’ লিখে দিয়েছে। অনেকেই সেই স্ক্রিনশট শেয়ার দিয়ে লিখেছেন, ‘যে এটি করেছেন তাঁকে সাধুবাদ। সত্যি তো এটাই।’ উল্লেখ্য, উইকিপিডিয়া একটি মুক্ত বিশ্ব তথ্যভাণ্ডার এবং বিশ্বব্যাপী স্বেচ্ছাসেবীদের দিয়ে এতে তথ্য সংযুক্ত করা হয়। ফিল্মফেয়ার কর্তৃপক্ষকে একহাত নিয়েছেন ‘কেশরি’ ছবির গীতিকার মনোজ মুন্তাশির। টুইটারে তিনি লেখেন, “সারা জীবন চেষ্টা করেও ‘তু কেহেতি থি তেরা চাঁদ হু ম্যায়’ লিখতে পারব না। যে গানের কথায় লাখ লাখ ভারতীয় কেঁদেছেন, জন্মভূমির জন্য ভাবতে পেরেছেন—তাঁকে আপনারা সম্মান জানাতে ব্যর্থ হয়েছেন। শিল্পের এই অসম্মানের জন্য আমি শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত আর কোনো অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে যাব না। আলবিদা!”

 

সূত্র : নিউজ ১৮

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা