kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ চৈত্র ১৪২৬। ৩১ মার্চ ২০২০। ৫ শাবান ১৪৪১

৬৫তম ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড

গলি বয় রাজপথে

রংবেরং ডেস্ক   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



গলি বয় রাজপথে

গেল বছর ভালোবাসা দিবসে মুক্তি পেয়েছিল যোয়া আখতারের ‘গলি বয়’। মুক্তির পর সমালোচকদের ব্যাপক প্রশংসা তো ছিলই, বক্স অফিসেও ব্যবসা করেছিল দুর্দান্ত। ঠিক এক বছর পর ফের আলোচনায় ছবিটি। উপলক্ষ ৬৫তম ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড। ভারতীয় চলচ্চিত্রের সম্মানজনক এ পুরস্কারের এবারের আসরে সর্বোচ্চ ১৩ পুরস্কার পেয়েছে ‘গলি বয়’। গত ১৫ ফেব্রুয়ারি মুম্বাইয়ে হয় এবারের ফিল্মফেয়ার। এর আগে সর্বোচ্চ ১৯ মনোনয়ন পেয়ে অন্যদের চেয়ে এমনিতেই এগিয়ে ছিল ছবিটি। সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ব্যাপার হলো সেরা ছবি, সেরা পরিচালক, সেরা অভিনেতা ও অভিনেত্রীর মতো সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ চার পুরস্কারের সব কটিই পেয়েছে ‘গলি বয়’। এর আগে এ কৃতিত্ব ছিল শুধু সঞ্জয়লীলা বানসালির ‘ব্লাক’-এর। ‘গলি বয়’-এ সাফিনা গেল বছর বলিউডের অন্যতম নারী চরিত্র। চরিত্রটি করে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার বাগিয়েছেন আলিয়া ভাট। একই ছবিতে র‌্যাপারের চরিত্র করে রণবীর সিং হয়েছেন সেরা অভিনেতা। ‘গলি বয়’-এর ইতিহাস লেখা এখানেই শেষ হয়। এ ছবিতে অভিনয় করে সিদ্ধান্ত চতুর্বেদী ও অমরুতা সুভাস যথাক্রমে সেরা পার্শ্ব অভিনেতা ও অভিনেত্রী হয়েছেন। অর্থাৎ অভিনয় ক্যাটাগরিতে সব পুরস্কারই পেয়েছে ‘গলি বয়’। এর আগে শুধু ‘কাভি খুশি কাভি গম’-এর ক্ষেত্রেই এমনটা হয়েছিল। যোয়া আখতারের ছবিটি ছাড়া ফিল্মফেয়ারে আধিপত্য দেখিয়েছে ‘আর্টিকেল ১৫’। ভারতের শ্রেণিবৈষম্য নিয়ে অনুভব সিনহার ছবিটি সমালোচকদের বিচারে যৌথভাবে সেরা ছবি হয়েছে। সেরা হওয়া আরেকটি ছবি অভিষেক চৌবের ‘সনচারিয়া’। ‘আর্টিকেল ১৫’-এর আয়ুষ্মান খুরানা হয়েছেন সমালোচকদের রায়ে সেরা অভিনেতা। একই ক্যাটাগরির সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছেন ভূমি পেডনেকর ও তাপসী পান্নু। পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক দুই শার্প শুটার বোনের গল্প নিয়ে তৈরি ‘সান্দ কি আঁখ’-এর জন্য এ স্বীকৃতি পেয়েছেন তাঁরা।

অন্যান্য পুরস্কারের মধ্যে অরিজিত সিং ও শিল্পা রাও হয়েছেন সেরা গায়ক ও গায়িকা। ‘উরি—দ্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’-এর জন্য আদিত্য ধর হয়েছেন সেরা নবাগত পরিচালক। সেরা নবাগত অভিনেতা ও অভিনেত্রী হয়েছেন যথাক্রমে অভিমন্যু দশানি [মর্দ কি দর্দ নেহি হোতা] ও অনন্যা পাণ্ডে [স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার ২, পতি পত্নী অউর ওহ]। ফিল্মফেয়ারে আজীবন সম্মাননা জানানো হয় ‘শোলে’ পরিচালক রমেশ সিপ্পিকে। ভারতীয় চলচ্চিত্রে বিশেষ অবদানের জন্য সম্মান জানানো হয় গোবিন্দকে। তিন দশক ধরে বলিউডে অসাধারণ কাজের জন্য সম্মান জানানো হয় ডিজাইনার মনীশ মালহোত্রাকে। এবারের ফিল্মফেয়ার উপস্থাপনা করেন করণ জোহর ও ভিকি কৌশল। পারফরম করেন অক্ষয় কুমার, রণবির সিং, মাধুরী দীক্ষিত প্রমুখ।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা