kalerkantho

বুধবার । ৬ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

স্ক্রিন অ্যাক্টর গিল্ড অ্যাওয়ার্ডস

ইতিহাসে প্যারাসাইট

১৯ জানুয়ারি [বাংলাদেশ সময় ২০ জানুয়ারি সকাল] হয়ে গেল ২৬তম ‘স্ক্রিন অ্যাক্টর গিল্ড অ্যাওয়ার্ডস’ বা ‘সেগ’। এবারের আসরের উল্লেখযোগ্য পুরস্কার ও ঘটনা নিয়ে লিখেছেন লতিফুল হক ও মারজান ইমু

২১ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ইতিহাসে প্যারাসাইট

গেল বছর কান চলচ্চিত্র উৎসবে স্বর্ণ পামের জয়ের পর থেকেই শুরু ‘প্যারাসাইট’-এর জয়যাত্রা। এর পর থেকে একের পর এক ইতিহাস গড়ে চলেছে দক্ষিণ কোরীয় ছবিটি। দিনকয়েক আগে গোল্ডেন গ্লোবে সেরা বিদেশি ছবি হয়েছে। অস্কারেও পেয়েছে সেরা ছবি, সেরা পরিচালক ও সেরা বিদেশি ভাষার ছবি ক্যাটাগরিতে মনোনয়ন। এবার স্ক্রিন অ্যাক্টর গিল্ড অ্যাওয়ার্ডসেও বাজিমাত করল বং জুন-হোর ছবিটি। আসরের সেরা ছবির পুরস্কার জিতেছে এটি। এই প্রথম কোনো বিদেশি ভাষার ছবি সেগ-এ সর্বোচ্চ পুরস্কার জিতল, যা পেয়ে রীতিমতো উত্তেজিত পরিচালক। প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এটা তাঁর অসাধারণ অভিনেতাদের কাজের স্বীকৃতি। সেগ-এ সেরা হতে ‘প্যারাসাইট’ কে পেছনে ফেলতে হয়েছে ‘বম্বশেল’, ‘দ্য আইরিশম্যান’, ‘জোজো র‌্যাবিট’, ও ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন হলিউড’-এর মতো ছবিগুলোকে। সেরার পুরস্কার বাদে সেগ-এর বাকি পুরস্কারগুলো ছিল যেন গোল্ডেন গ্লোবের পুনরাবৃত্তি। ৫ জানুয়ারি হয়ে যাওয়া পুরস্কারটির মতো এখানেও সেরা অভিনেতা, অভিনেত্রী হয়েছেন হোয়াকিন ফিনিক্স ও রেনে জেলওয়েগার। যথাক্রমে ‘জোকার’ ও ‘জুডি’-এর জন্য এ পুরস্কার পেয়েছেন তাঁরা। প্রথমটি সুপারহিরো ছবি, দ্বিতীয়টি কিংবদন্তি অভিনেত্রী ও শিল্পী জুডি গারল্যান্ডের জীবন নিয়ে। গোল্ডেন গ্লোবের মতোই এখানেও সেরা পার্শ্ব অভিনেতা হয়েছেন ব্রাড পিট [ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন হলিউড]। সেগ-এ এই পুরস্কারের নাম ‘আউটস্ট্যান্ডিং পারফরম্যান্স বাই আ মেল অ্যাক্টর ইন আ সাপোর্টিং রোল’। ‘ম্যারেজ স্টোরি’র জন্য সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী হয়েছেন লরা ডার্ন। গোল্ডেন গ্লোবেও একই ক্যাটাগরিতে সেরা হয়েছিলেন ৫২ বছর বয়সী অভিনেত্রী।

চলচ্চিত্রের পুরস্কারের মতোই গোল্ডেন গ্লোবের সঙ্গে মিলে গেছে সেগ-এর টিভি পুরস্কারও। এখানে টিভি মুভি বা মিনি সিরিজের সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতেছেন স্যাম রকওয়েল। গেল বছরের আলোচিত সিরিজ ‘ফসে / ভারদেন’-এর জন্য এ পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। একই সিরিজের জন্য সেরা অভিনেত্রী হয়েছেন মিশেল উইলিয়ামস। এ ছাড়া ড্রামা সিরিজ ক্যাটাগরিতে সেরা অভিনেত্রী হয়েছেন জেনিফার অ্যানিস্টন। হালের দুই আলোচিত সিরিজ ‘দ্য মারভেলাস মিসেস মেইজল’ ও ‘দ্য ক্রাউন’ও পুরস্কার জিতেছে যথাক্রমে কমেডি ও ড্রামা ক্যাটাগরিতে।

আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন ‘দ্য আইরিশম্যান’ অভিনেতা রবার্ট ডি নিরো। সম্মাননা নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কট্টর এই সমালোচক ক্ষমতার অপব্যবহারের বিরুদ্ধে সবাইকে মুখ খোলার আহ্বান জানান। তিনি কথা বলেন পরিবেশ, অস্ত্র আইন, অভিবাসন আইন ইত্যাদি নানা প্রসঙ্গে।

পুরস্কারের বাইরে এবারের সেগ-এ অন্যতম বড় ঘটনা ব্রাড পিট ও জেনিফার অ্যানিস্টনের আলিঙ্গন। এবার দুজনেই চলচ্চিত্র ও টিভির দুই ক্যাটাগরিতে পুরস্কার জিতেছেন। পরে মঞ্চের পেছনে একে অপরকে অভিনন্দন জানিয়ে জড়িয়ে ধরেন সাবেক এই তারকা দম্পতি।

সূত্র : এএফপি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা