kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

সা ক্ষা ৎ কা র

দুই মিনিটও ফ্রি ছিলাম না

৬ ডিসেম্বর কলকাতায় অভিষেক ঘটেছে ববি হকের। জয়দীপ মুখোপাধ্যায়ের ‘রক্তমুখী নীলা’ মুক্তি পেয়েছে ৪০টির বেশি হলে। কেমন সাড়া পাচ্ছেন ববি! পরবর্তী মিশনই বা কী? ববির সঙ্গে কথা বলেছেন সুদীপ কুমার দীপ

৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুই মিনিটও ফ্রি ছিলাম না

ছবি মুক্তি উপলক্ষে কলকাতা গেলেন না কেন?

এই আফসোস সারা জীবন থেকে যাবে। এই মুহূর্তে আমার বাসা একেবারে খালি। মা অস্ট্রেলিয়া গেছেন। আমিও যদি ঢাকার বাইরে যাই তাহলে বাসা দেখার মানুষ নেই। তাই আর কলকাতা যাওয়া হয়নি।

 

ছবি কেমন চলছে! খোঁজখবর নিয়েছেন?

শুক্রবার পুরো দিনটাই ফোনে কথা বলতে বলতে কেটে গেছে। দুই মিনিটও ফ্রি ছিলাম না। একবার পরিচালক ফোন করেন তো অন্যবার প্রযোজক, কখনো আবার নায়কসহ অন্য কলাকুশলীরা—সবাই আমাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। প্রথম দিনের দর্শক সাড়া দেখে তাঁরা অভিভূত। কেউ কেউ বলেছেন জয়া (আহসান) আপার পর এপার বাংলা থেকে আমিই নাকি কলকাতার দর্শকের মন জয় করতে পেরেছি! এই খবর শুনে গর্ব লেগেছে।

 

আবার নিশ্চয় এই টিমের সঙ্গে আপনাকে দেখা যাবে?

আমি যদি ৬ ডিসেম্বর কলকাতায় থাকতাম তাহলে হয়তো ওই দিনই পরিচালক নতুন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ করতেন। ফোনেও তা-ই বলেছেন। খুব উচ্ছ্বসিত তিনি। কারণ একই দিনে বলিউডের ‘পতি পত্নী অউর ওহ’ এবং কলকাতার ‘যকের ধন’ মুক্তি পেয়েছে। এই দুটি ছবির সঙ্গে লড়াই করে ‘রক্তমুখী নীলা’ একটা অবস্থান তৈরি করে নিয়েছে। এতে খুশি হওয়ারই কথা।

 

ছবির নায়ক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপনাকে প্রশংসার জোয়ারে ভাসিয়েছেন...

সব্যসাচী মিশ্র দারুণ জনপ্রিয় অভিনেতা। ‘ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস ইস্ট’ থেকে শুরু করে ‘ওড়িশা স্টেট ফিল্ম অ্যাওয়ার্ডস’—অনেক পুরস্কার আছে তার ঝুলিতে। সে তামিল, তেলেগু ও ওড়িশার ছবিতে নিয়মিত কাজ করে। শুটিংয়ের সময় আমাদের মধ্যে বন্ধুত্ব তৈরি হয়। সব্যসাচী অনেক বেশি পেশাদার অভিনেতা। তার কাছ থেকে শিখেছিও। সে আমাকে নিয়ে যে প্রশংসা করেছে সেটা দেখে ভালো লেগেছে।

 

নতুন কী খবর!

আপাতত বিশ্রামে আছি। সামনের মাসে অস্ট্রেলিয়া যাব। সেখানে প্রায় এক মাস থাকব। এরপর দেশে ফিরে নতুন কাজের খবর দেব। কলকাতার নতুন ছবির বিষয়েও বিস্তারিত জানাব।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা