kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

চলেই গেলেন...

রংবেরং প্রতিবেদক   

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চলেই গেলেন...

মাহফুজুর রহমান খান [১৯৪৯—২০১৯]

১০ দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে শেষ পর্যন্ত না-ফেরার দেশে পাড়ি দিয়েছেন ১০ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া চিত্রগ্রাহক মাহফুজুর রহমান খান। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টা ২৬ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। ডায়াবেটিস ও ফুসফুসের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। ২৫ নভেম্বর রাতে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাঁকে গ্রিন লাইফ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর পর থেকেই হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে রাখা হয় তাঁকে। পরে স্থানান্তর করা হয় ইউনাইটেড হাসপাতালে। তবু শেষ রক্ষা হয়নি। ১৯৪৯ সালে ঢাকার লালবাগে জন্মগ্রহণ করেন মাহফুজ। প্রখ্যাত পরিচালক এহতেশাম ও মুস্তাফিজ ছিলেন তাঁর ফুফাতো ভাই। আব্দুল লতিফ বাচ্চুর কাছে চিত্রগ্রহণের কাজ শেখেন। ১৯৭০ সালে ‘দর্প চূর্ণ’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক। এরপর একে একে ‘স্বরলিপি’, ‘আলোছায়া’, ‘দাবি’, ‘কাচের স্বর্গ’, ‘অভিযান’, ‘আগুনের পরশমণি’, ‘আনন্দ অশ্রু’, ‘ঘেটুপুত্র কমলা’, ‘হাজার বছর ধরে’সহ অনেক ছবি করেছেন। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার দিনও অপূর্ব রানার ‘উন্মাদ’ ছবির চিত্রগ্রহণ করেছিলেন। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে ‘আমার জন্মভূমি’ ছবিতে নায়কও হয়েছিলেন। গতকাল চকবাজার শাহী মসজিদে অনুষ্ঠিত হয় তাঁর প্রথম জানাজা। বিকেলে তাঁর মরদেহ আনা হয় এফডিসিতেও। এরপর আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করা হয় তাঁকে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা