kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৩ মাঘ ১৪২৮। ২৭ জানুয়ারি ২০২২। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

শৌখিন থেকে অপরিহার্য পণ্য

শহর ছাড়িয়ে টাইলসের ব্যবহার বাড়ছে গ্রামেও

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শহর ছাড়িয়ে টাইলসের ব্যবহার বাড়ছে গ্রামেও

একসময় শৌখিন হিসেবে বিবেচিত হলেও এখন অপরিহার্য পণ্যে পরিণত হয়েছে সিরামিক টাইলস। অতীতে নির্মাণ পণ্যটির ক্ষেত্রে পুরোপুরি আমদানিনির্ভর ছিল বাংলাদেশ। বর্তমানে এ খাতে বিনিয়োগ নিয়ে এগিয়ে এসেছে দেশি বড় করপোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোও। দেশে বর্তমানে গোটা সিরামিকশিল্পের বিনিয়োগ ৯ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এর মধ্যে শুধু টাইলস উৎপাদনে পাঁচ হাজার কোটি টাকার বেশি বিনিয়োগ করেছে প্রতিষ্ঠানগুলো।

দেশে স্থাপিত সিরামিক শিল্প-কারখানাগুলোয় উৎপাদিত পণ্য মূলত তিন ভাগে বিভক্ত স্যানিটারিওয়্যার, টেবিলওয়্যার ও টাইলস। এর মধ্যে স্যানিটারিওয়্যার তৈরি করে এমন প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ১৮। টেবিলওয়্যার তৈরি করে ২০টি। বাকি ৩০টি প্রতিষ্ঠানে তৈরি হয় টাইলস। এই ৩০ প্রতিষ্ঠানে মোট বিনিয়োগের পরিমাণ পাঁচ হাজার ২৩৫ কোটি টাকা।

সিরামিক টাইলসের আমদানি ও রপ্তানি দুই বাজারেই উপস্থিতি রয়েছে বাংলাদেশের। পণ্যটির বার্ষিক আমদানির অর্থমূল্য ৭৪৫ কোটি টাকা। রপ্তানির অর্থমূল্য এক কোটি ৪২ লাখ টাকা। তবে মূলত স্থানীয় উৎপাদনের ভিত্তিতেই গড়ে উঠেছে পণ্যটির বাজার। দেশে স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত টাইলসের বার্ষিক বিক্রির পরিমাণ তিন হাজার ৮৫৫ কোটি টাকা। সব মিলিয়ে টাইলস বাজারের আকার এখন চার হাজার ৬০১ কোটি ৪৬ লাখ টাকার।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, ব্যবহার ও চাহিদায় বড় ধরনের উল্লম্ফনে বাজারও বড় হচ্ছে। যে শিল্প-কারখানাগুলো এখন আছে, তাদের টেকসই হওয়ার সুযোগ আছে।

এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের প্রতিবেদনের বরাতে খাতসংশ্লিষ্টরা বলছেন, গত পাঁচ বছরে দেশে টাইলসশিল্পের প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২০০ শতাংশ। আগামী ২০ বছরে নির্মাণশিল্পের প্রবৃদ্ধি হবে দুই অঙ্কের। এই প্রেক্ষাপটে বড় কম্পানিগুলো সম্ভাবনা দেখতে পেয়েছে বলেই বিনিয়োগ করেছে।

বিসিএমইএ সভাপতি মো. সিরাজুল ইসলাম মোল্লা বলেন, স্থানীয় বাজার এখন বেশ প্রতিযোগিতামূলক। আগে এত প্রতিযোগিতা ছিল না, কিন্তু এখন বেশ ভালো মাত্রায় রয়েছে। বড় বড় করপোরেট এখন এই খাতে আসছে। এর কারণও রয়েছে। একটা সময়ে সিরামিক টাইলস আমদানি হতো। সেই নির্ভরতা এখন অনেকাংশেই চলে গিয়েছে। আরেকটি বিষয় হলো আমাদের দেশের মানুষের চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। আগে এটি শহরে বেশি ব্যবহার হতো এখন গ্রামগঞ্জেও টাইলসের ব্যবহার হচ্ছে। এক কথায় টাইলস এখন একটি অপরিহার্য পণ্যে পরিণত হয়েছে।

খাতসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, টাইলস এখন লাইফস্টাইল পণ্যে পরিণত হয়েছে। এ ছাড়া সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এখন যোগাযোগব্যবস্থা অনেক উন্মুক্ত। ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য, ভারত বিশ্বের কোথায় কী হচ্ছে তা খুব সহজেই জানা সম্ভব হচ্ছে। ফলে টাইলসের ব্যবহার এখন সাধারণ মানুষ শিখে গেছে। আগে মোজাইক দেখা যেত বাসাবাড়িতে।

বিসিএমইএ সূত্রে জানা গেছে, পণ্যটির মোট বাজারের ৬০ শতাংশেরও বেশি দখল করে রয়েছে শীর্ষ পাঁচ প্রতিষ্ঠান। বাজারে প্রতিযোগিতায় থাকা অন্য প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিটিরই অংশীদারি ৫ শতাংশেরও কম।



সাতদিনের সেরা