kalerkantho

মঙ্গলবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১২ রবিউস সানি     

ভ্যাট ফাঁকি রোধে কঠোর নজরদারি করতে হবে

ড. নুরুল আজহার
সভাপতি, বাংলাদেশ ভ্যাট বার অ্যাসোসিয়েশন

৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



ভ্যাট ফাঁকি রোধে কঠোর নজরদারি করতে হবে

নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে। তবে এটি কার্যকরের জন্য মানুষকে যতটা উদ্বুদ্ধ করা দরকার ছিল, তা করা যায়নি। আর ভ্যাট মানুষ দেয়, তবে এর কাঙ্ক্ষিত সেবা পায় না। নতুন আইনে টার্নওভার ট্যাক্সের পরিধি বাড়ানো খুবই ইতিবাচক হয়েছে। আসলে ভ্যাট নিয়ে ব্যবসায়ীরা কেন আন্দোলন করে এটি আমি বুঝি না। ভ্যাট দেয় সাধারণ মানুষ ও ক্রেতা। তাদের কোনো আপত্তি না থাকলে যারা আদায় করে তাদের আপত্তি কাম্য নয়। দেশে যেভাবে শিল্প-কারখানা গড়ে উঠছে, সেভাবে ভ্যাট আদায় হয় না। সাধারণত ভ্যাটের একটি বড় অংশ ফাঁকি হয়। আদায়কারীদের সঙ্গে ভ্যাটদাতাদের একটি যোগসাজশের কারণেই ভ্যাট ফাঁকি হয়। আমি মনে করি, ভ্যাট ফাঁকি কমাতে নজরদারি বাড়ানোর পাশাপাশি আইনের সঠিক প্রয়োগ করতে হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা