kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রংপুরে খেলার মাঠে মেলা

রংপুর অফিস   

৪ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রংপুরে খেলার মাঠে মেলা

রংপুর ক্রিকেট গার্ডেনে মেলা উপলক্ষে মাটি খুঁড়ে স্থাপন করা হয়েছে খেলার সামগ্রী, পানির ফোয়ারা ও ১২০টি স্টল। ছবি : কালের কণ্ঠ

রংপুর ক্রিকেট গার্ডেন মাঠে মাসব্যাপী শুরু হয়েছে শিল্প ও বাণিজ্য মেলা। খেলার মাঠে এ ধরনের মেলার আয়োজন করায় হতাশা প্রকাশ করেছে ক্রিকেট ভক্তরা। এদিকে রংপুর জেলা ও মহানগর দোকান মালিক সমিতির সভাপতি,  সম্পাদকসহ ব্যবসায়ীরা মেলা বন্ধের দাবি করেছেন।

গত রবিবার রংপুর মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির উদ্যোগে মাসব্যাপী রংপুর শিল্প ও বাণিজ্য মেলার উদ্বোধন করেন রংপুর বিভাগীয় কমিশনার সাবিরুল ইসলামসহ জেলা প্রশাসক ও পুলিশ কমিশনার।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, রংপুর ক্রিকেট গার্ডেনে প্রথম বিভাগ ক্রিকেট লীগ, প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগ ও অনূর্ধ্ব ১৪, ১৬, ১৮ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট হয়। রংপুরে ২৭টি ক্রিকেট ক্লাব আছে, সব খেলোয়াড় এই মাঠে অনুশীলন করে।

জাতীয় ক্রিকেট লীগ শুরু হচ্ছে চলতি মাসের ১০ তারিখ থেকে। কিন্তু রংপুর ক্রিকেট গার্ডেনে অবকাঠামো নির্মাণ এবং শিল্প ও বাণিজ্য মেলা চলার কারণে জাতীয় ক্রিকেট লীগ ভেন্যু এবার রংপুরে হচ্ছে না।

সরেজমিনে দেখা যায়, মাঠের মূল ভেন্যুর বাইরে ক্রিকেট গার্ডেনের মাঠের সীমানার ভেতরে মেলার স্টল বসানো হয়েছে। মাঝখানে মাটি খুঁড়ে স্থাপন করা হয়েছে টাওয়ার ও ঘর। মূল ফটক দিয়ে ভেতরে গেলে চোখে পড়ে টাওয়ার ও কৃত্রিম পানির ফোয়ারা। মেলার জন্য মোট ১২০টি স্টল তৈরি করা হয়েছে।

মেলা চললে খেলোয়াড়দের অনুশীলন কার্যক্রমে বিরূপ প্রভাব পড়বে বলে আশঙ্কা খেলোয়াড়সহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের। মেলার পেছনে খেলোয়াড়দের ড্রেসিংরুমে যাওয়ার রাস্তায় অরক্ষিত বিদ্যুতের তার টানা হয়েছে। যেকোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা স্থানীয়দের। আবার মাঠে অনুশীলনে ব্যস্ত অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক আকবর আলী, জাতীয় দলের ক্রিকেটার নাসির, শুভসহ অনেক খেলোয়ার। মাঠে বসে খেলা দেখছেন আকবরের বাবা মোহাম্মদ মোস্তফা। তিনি বলেন, ‘মেলা চলাকালে ক্রিকেট খেলোয়াড়দের মধ্যে এর প্রভাব না পড়লেও খেলার মাঠে এ ধরনের মেলার আয়োজন করা ঠিক হয়নি। ’

এদিকে মেলার বিরোধিতা করছে রংপুর মহানগর দোকান মালিক সমিতিও। সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন বলেন, ‘দেশে করোনা পরিস্থিতির কারণে ব্যবসায় লোকসান হয়েছে। এই মুহূর্তে রংপুরের একটি মহল যারা ব্যবসা সংগঠনের সঙ্গে জড়িত নয়, একটি অর্থলোভী মহল ব্যবসা খাতকে নষ্ট করার জন্য শিল্প ও বাণিজ্য মেলা অবৈধভাবে করার প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছি। ’

তিনি বলেন, ‘অতি দ্রুত এই মেলা বন্ধ করা না হলে ব্যবসায়ী সমিতি কঠোর আন্দোলনে যাবে। ’

সুজনের রংপুর মহানগর সভাপতি ফখরুল আনাম বেঞ্জু বলেন, ‘এতে যদি মাঠের ক্ষতি হয় তবে তা হবে আত্মঘাতী। ’

রংপুর জেলা ও বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক অ্যাডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘রংপুুর ক্রিকেট গার্ডেনের মাঠে মূল ভেন্যুতে মেলার আয়োজন করা হয়নি। ক্রিকেট খেলার মূল ভেন্যুর পাশে মাঠের অংশে মেলার আয়োজন করা হয়েছে। তাই খেলার মাঠে মেলার প্রভাব পড়বে না। ’

মেলার আয়োজক রংপুর মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির প্রেসিডেন্ট রেজাউল ইসলাম মিলন বলেন, ‘আমরা রংপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার কাছে মাঠ এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিয়ে মেলার আয়োজন করেছি। খেলার সমস্যা করে মেলা করছি না। ’

 

 



সাতদিনের সেরা