kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০২২ । ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অটোরিকশার ভাড়া নিয়ে সংঘর্ষ, আহত অর্ধশত

নেত্রকোনা প্রতিনিধি   

৩ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অটোরিকশার ভাড়া নিয়ে সংঘর্ষ, আহত অর্ধশত

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার ছিলিমপুর গ্রামে গতকাল সংঘর্ষ চলাকালে ভাঙচুর করা বাড়িঘর। ছবি : কালের কণ্ঠ

অটোরিকশার ভাড়া নিয়ে নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় দুই পাড়ার লোকজনের সংঘর্ষে প্রায় অর্ধশত লোক আহত হয়েছে। গতকাল রবিবার দুপুরে উপজেলার চিরাং ইউনিয়নের ছিলিমপুর গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত পাঁচজনকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহত অন্যরা স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিত্সা নিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

গুরুতর আহতরা হলেন খলিলুর রহমান খান (৩০), তরিকুল (২২), রাতুল খান (২২), সাকিব (২০) ও রাব্বি (১৮)। তাঁদের ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সিলিমপুর গ্রাম থেকে উপজেলা সদরে চলাচলকারী অটোরিকশার ভাড়া আদায় নিয়ে কিছুদিন ধরে চালক ও গ্রামবাসীর মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছিল। এ অবস্থায় গতকাল স্থানীয়ভাবে ছিলিমপুর গ্রামে বৈঠকের আয়োজন করা হয়। এতে সর্বসাধারণের জন্য ১০ টাকা এবং শিক্ষার্থীদের জন্য পাঁচ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু চালক পক্ষ সর্বসাধারণের জন্য ভাড়া ১৫ টাকা করার দাবি জানায়। এ নিয়ে দুটি পক্ষ হয়ে যায়। পরে ছিলিমপুর মাইজপাড়া ও দক্ষিণপাড়ার লোকজন দেশি অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে উত্তরপাড়ার লোকজন ও তাদের বাড়িঘরে হামলা করে। তখন উত্তরাপাড়ার লোকজন পাল্টা হামলা চালায়। এতে দুই পক্ষের সংঘর্ষ বেধে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে ১৮ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সংঘর্ষ চলাকালে উত্তরপাড়ার ইব্রাহিম খান, হোসেন খান ও আউয়াল খানের বাড়িঘর ভাঙচুর ও গাছপালা কেটে ফেলা হয়। তা ছাড়া ইব্রাহিম খান ও জসিম খানের আটটি গরু প্রতিপক্ষের লোকজন নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ তাঁদের। তবে এ বিষয়ে প্রতিপক্ষের কারো সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

কেন্দুয়া থানার ওসি মো. আলী হোসেন বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগের পেলে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে চলে তিনি জানান।

 



সাতদিনের সেরা