kalerkantho

রবিবার । ৪ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়

কর্মকর্তাদের দখলে শিক্ষার্থীদের বাস

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গত অর্থবছরে শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য দুটি দোতলা বাস কিনতে তিন কোটি টাকা বরাদ্দ পেয়েছিল ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি)। তবে নানা কারণে কেনা যায়নি সেই দোতলা বাস। পরে শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দের এক কোটি ২৪ লাখ টাকায় তিনটি সাধারণ বাস কেনা হলেও তার একটি কর্মকর্তাদের যাতায়াতের জন্য দেওয়ার আলোচনা চলছে। ফলে দুটি সাধারণ বাস নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের।

বিজ্ঞাপন

পরিবহন দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, দোতলা দুটি বাস কেনার জন্য বরাদ্দ পেলেও সে সময় দেশে এ বাস আমদানি বন্ধ থাকায় কেনা সম্ভব হয়নি। এতে সময় নষ্ট হলেও বরাদ্দের টাকায় অন্য বাস কেনা হয়নি। এর মধ্যেই করোনা পরিস্থিতিতে দেড় কোটি টাকা ফেরত নেয় সরকার। পরে বাকি টাকার সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আরো কিছু টাকা যুক্ত করে টেন্ডারের মাধ্যমে মোট পাঁচটি গাড়ি কেনে। এর মধ্যে তিনটি ৫২ আসনের বাসে এক কোটি ২৪ লাখ ৫০ হাজার ও দুটি এসি মাইক্রোবাসে ৮৮ লাখ টাকা ব্যয় হয়। ফলে শিক্ষার্থীদের দুটি বাস দেওয়া হলে তাঁরা বরাদ্দের দেড় কোটি টাকা থেকে ৮৩ লাখ এবং তিনটি দেওয়া হলে এক কোটি ২৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা পাবেন। বাকি টাকা শিক্ষকদের গাড়িতে ব্যয় করা হয়।

এদিকে শিক্ষার্থীরা তাঁদের বরাদ্দ থেকে কেনা বাস কর্মকর্তাদের দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এ বিষয়ে গাড়ি ক্রয় কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক কাজী আখতার হোসেন বলেন, ‘মাঝে করোনায় মুভমেন্ট করা যেত না, এ জন্য তখন গাড়ি কেনা যায়নি। বাসগুলোর বিষয়ে এখনো সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়নি। শিক্ষার্থীরা তিনটিও পেতে পারে, তবে দুটির নিচে না। ’

পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘বরাদ্দ অনুযায়ী আমরা দ্বিতল বাস কেনার চেষ্টা করেছি; কিন্তু দেশে আমদানি বন্ধ থাকায় তা সম্ভব হয়নি। ’



সাতদিনের সেরা