kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নারীর মুখে টেপ লাগানো লাশ পড়ে ছিল মেঝেতে

জয়পুরহাট প্রতিনিধি   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জয়পুরহাটে একটি আবাসিক ভবন থেকে সাজেদা বেগম (৩৫) নামের এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মুখে স্কচটেপ লাগানো ও দুই হাত পেছনে বাঁধা অবস্থায় ঘরের মেঝেতে পড়েছিল লাশটি। গতকাল মঙ্গলবার জেলা শহরের জানিয়ার বাগান এলাকার একটি আবাসিক বহুতল ভবনের পাঁচতলা ফ্ল্যাট থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, নিহত সাজেদা বেগম তাঁর এসএসসি পরীক্ষার্থী ছোট মেয়ে আরিফাকে নিয়ে ওই ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকতেন।

বিজ্ঞাপন

তাঁর স্বামী হাফিজুল ইসলাম সিলেটের একটি কম্পানিতে চাকরি করেন। তাঁদের গ্রামের বাড়ি জেলার পাঁচবিবি উপজেলার আয়মা রসুলপুর গ্রামে। মঙ্গলবার সকালে সাজেদা বেগমের ছোট মেয়ে আরিফা এসএসসি পরীক্ষা দিতে যায়। পরীক্ষা শেষে দুপুরে বাসায় ফিরে দেখতে পায় মুখে স্কচটেপ লাগানো ও দুই হাত পেছনে বাঁধা অবস্থায় তাঁর মা ঘরের মেঝেতে পড়ে আছেন। এ দৃশ্য দেখে সে চিৎকার করলে বিষয়টি জানাজানি হয়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে সাজেদা বেগমের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

জয়পুরহাট সদর থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘খুনের রহস্য উদঘাটনে সিআইডি ও ডিবি পুলিশ কাজ করছে। ’



সাতদিনের সেরা