kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ইউএনও ও ওসির বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইউএনও ও ওসির বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় গ্রাম পুলিশ নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ তুলে এক চাকরিপ্রার্থী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), থানার ওসি, ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা প্রকৌশলী ও আনসার-ভিডিপি কর্মকর্তাসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেছেন। উপজেলার মণ্ডুতোষ ইউনিয়নের দিয়ারপাড়া গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলের রুহুল আমিন গত বৃহস্পতিবার এই মামলা করেন।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, পাঁচটি ইউনিয়নে পাঁচজন গ্রাম পুলিশ নিয়োগে উপজেলা প্রশাসন বিজ্ঞপ্তি দিলে মামলার বাদী রুহুল আমিন ও আরেক বিবাদী মাহবুবুল আলমসহ চারজন আবেদন করেন। বিজ্ঞপ্তির শর্ত মোতাবেক প্রার্থীদের বয়স ১৮ থেকে ৩০ বছর ও নির্দিষ্ট ওয়ার্ডের বাসিন্দা হতে হবে।

বিজ্ঞাপন

একাধিক প্রার্থীর বয়স ৩০ পেরিয়ে যাওয়ায় তাঁরা বাদ পড়েন। তবে জাতীয় পরিচয়পত্রে মাহবুবুল আলমের বয়স ৩০ পার হলেও তিনি নিয়োগ পান। এ ছাড়া ৯ নম্বর ওয়ার্ডে নিয়োগ হলেও তাঁর বাড়ি ৮ নম্বর ওয়ার্ডে।

মামলার বাদী রুহুল আমিনের বয়স ৩০ বছরের কম থাকা এবং নির্দিষ্ট ওয়ার্ডের বাসিন্দা হওয়া সত্ত্বেও তাঁকে মৌখিক পরীক্ষা থেকে বাদ দেওয়া হয়। রুহুল আমিন বলেন, ‘প্রহসনমূলক নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে মাহবুব আলমকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। ’

এ বিষয়ে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আফসার আলী বলেন, ‘রুহুল আমিনের আবেদনে ভুলত্রুটি থাকায় বাছাইয়ে বাদ পড়েছেন। এ ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট ওয়ার্ডে প্রার্থী না থাকায় পার্শ্ববর্তী ওয়ার্ডের প্রার্থীকে চাকরি দেওয়া হয়। ’

৩০ বছরের অধিক ব্যক্তিকে চাকরি দেওয়ার বিষয় তিনি বলেন, ‘মাহবুবুল আলম জন্ম নিবন্ধন দিয়ে আবেদন করেছেন। তাই তাঁর জাতীয় পরিচয়পত্র দেখা হয়নি। ’

এ বিষয়ে ইউএনও নাহিদ হাসান খান বলেন, ‘সম্পূর্ণ বিধি মোতাবেক উপযুক্ত প্রার্থীকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে কোনো অনিয়ম হয়নি। ’



সাতদিনের সেরা