kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রোগীর পেটে কাঁচি মামলায় ক্লিনিক মালিক জেলে

মেহেরপুর প্রতিনিধি   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



রোগীর পেটে (সিজারিয়ান) কাঁচি রাখার মামলায় মেহেরপুরের গাংনীর রাজা ক্লিনিকের স্বত্বাধিকারী ডা. পারভিয়াস হোসেন রাজার জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল দুপুরে মেহেরপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিজ্ঞ বিচারক তারিক হাসান জামিন নামঞ্জুর করে তাঁকে জেলহাজতে পাঠান।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ২০০২ সালে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার নওদা হাপানিয়া গ্রামের দিনমজুর আব্দুল হামিদের স্ত্রী গৃহবধূ বাচেনা খাতুন পিত্তথলির অপারেশন করেন গাংনীর রাজা ক্লিনিকে। বাচেনা খাতুনের অপারেশন করেন চিকিৎসক মিজানুর রহমান।

বিজ্ঞাপন

পেটে ব্যথা ভালো না হওয়ায় ২০ বছর যাবৎ পেটের যন্ত্রণা নিয়ে ঘুরেছেন বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে। বিভিন্ন জায়গায় চিকিৎসা নিতে বিক্রি করেছেন ভিটেমাটি ও সহায়-সম্বল। রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এক্স-রে করানোর সময় তাঁর পেটে কাঁচি পাওয়া যায়।



সাতদিনের সেরা