kalerkantho

সোমবার । ২৮ নভেম্বর ২০২২ । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

দুই জেলায় তিনজনের মৃত্যু বজ্রপাতে

বানিয়াচং (হবিগঞ্জ) ও শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে হাওরে কৃষিকাজ করার সময় বজ্রপাতে দুই কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। পৃথক ঘটনায় শেরপুরের শ্রীবরদীতে বিদ্যালয়ের মাঠে বজ্রাঘাতে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্র নিহত হয়েছে।

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে বজ্রপাতে নিহত কৃষকরা হলেন আব্দুল করিম (৬৫) ও নূরউদ্দিন (৫০)। তাঁদের বাড়ি বানিয়াচং উপজেলার মজলিশপুর গ্রামে।

বিজ্ঞাপন

গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় বানিয়াচং উপজেলার ১ নম্বর উত্তর-পূর্ব ইউনিয়নের পিঠাবাড়ী হাওরে ঘটনাটি ঘটে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকাল থেকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছিল। ওই দুই কৃষক নিজেদের ধানের জমিতে সার দিচ্ছিলেন। সে সময় আকস্মিক বজ্রপাতে আব্দুল করিম ও নূরউদ্দিন ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মলয় কুমার দাশ জানান, নিহত দুজনের পরিবারকে সরকারিভাবে আর্থিক সাহায্য প্রদান করা হবে। নিহতদের পরিবারের আবেদনে লাশ দুটি পরিবারের লোকজনের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার ওসি অজয় চন্দ্র দেব ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, নিহতদের পরিবারের আবেদনে লাশ দুটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে শেরপুরের শ্রীবরদীতে রাতুল (১৮) নামের এক স্কুলছাত্র বজ্রপাতে নিহত হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুরে উপজেলার মালাকোচা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত রাতুল ওই এলাকার আবু বক্করের ছেলে ও টেংগড়পাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র।

স্থানীয়রা জানায়, দুপুরের দিকে উপজেলার মালাকুচা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে যায় রাতুল। এ সময় হঠাৎ বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। এতে মারাত্মক আহত হয়ে মাটিতে পড়ে যায় সে। পরে আশপাশের লোকজন ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 



সাতদিনের সেরা