kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

স্বেচ্ছাসেবক লীগে যুবদল-জামায়াতের নেতাকর্মী

মাগুরা প্রতিনিধি   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বেচ্ছাসেবক লীগে যুবদল-জামায়াতের নেতাকর্মী

যুবদল ও জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মী এবং অস্ত্র মামলার আসামিদের পদ দিয়ে মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার ছয় ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি গঠনের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগের পক্ষে নতুন কমিটিতে স্থান পাওয়াদের অনেকে পদত্যাগ করেছেন।

এ ছাড়া উপজেলার পলাশবাড়িয়া ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন কমিটি বাতিলের দাবিতে গতকাল শনিবার স্থানীয় পলাশবাড়িয়া বাজারে মানববন্ধন করেছে সংগঠনের ওই ইউনিয়ন শাখার একাংশ।

দলীয় একাধিক সূত্র জানায়, মহম্মদপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সুজন শিকদার, সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমানের উপস্থিতিতে গত শুক্রবার রাতে উপজেলার আট ইউনিয়নের মধ্যে ছয়টি ইউনিয়নের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এতে দেখা যায়, বাবুখালি ইউনিয়নে আলী হাসানকে সভাপতি, মুন্সি মোহাম্মদ মঞ্জুকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। আলী হাসান যুবদলের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত—এমন অভিযোগে ওই ইউনিয়নের নতুন কমিটির সাধারণ সম্পাদক, সহসভাপতি, যুগ্ম সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক, অর্থ সম্পাদক এবং একাধিক সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন।

অভিযোগকারীরা আরো বলেছেন, পলাশবাড়িয়া ইউনিয়নের নতুন কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে স্থান পাওয়া আহাদ খান একজন যুবদল নেতা। এ ছাড়া একই কমিটির সহসভাপতি নান্নু মিয়া অস্ত্র মামলার আসামি।

তবে নান্নু মিয়া বলেন, ‘আমাকে অস্ত্র মামলায় ফাঁসানো হয়। ’ আর সাধারণ সম্পাদক আহাদ খান বলেন, ‘একসময় যুবদল করতাম। ২০১৫ সাল থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত আছি। ’

জানা গেছে, পলাশবাড়িয়ার কমিটি ঘোষণার পর এলাকায় ব্যাপক সমালোচনার একপর্যায়ে স্থানীয় নেতাকর্মীদের তোপে মুখে পড়ে রাতেই ওই কমিটি বিলুপ্ত করেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। একই অভিযোগে নহাটা ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদ্য ঘোষিত কমিটি থেকে পদত্যাগ করেছেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রানা শিকদার ও দপ্তর সম্পাদক মাসুদ মোল্যা। বিনোদপুর ইউনিয়নের কমিটিতে জামায়াত নেতা গোলাম আকবরের ভাতিজা মশিউর রহমানকে সহসভাপতি, মহম্মদপুর উপজেলা জামায়াতের আমিরের ভাই খালিদ সাইফুল্লাহ লিটুকে প্রকাশনা সম্পাদক, যুবদলকর্মী তারিকুল ইসলামকে সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়েছে। একই অভিযোগ রাজাপুর ইউনিয়নের কমিটি নিয়ে।

যুবদল ও জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মী এবং অস্ত্র মামলার আসামিদের পদ দিয়ে কমিটি করার ব্যাপারে মহম্মদপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সুজন শিকদার বলেন, ‘আমাদের বিরুদ্ধে পরিকল্পিতভাবে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। কেবল পলাশবাড়িয়া ইউনিয়নের কমিটি গঠনে আমাদের কিছু ত্রুটি ছিল। ’

 

 



সাতদিনের সেরা