kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রানীশংকৈলে ঘুষ নেওয়ার ভিডিও ভাইরাল

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রানীশংকৈলে ঘুষ নেওয়ার ভিডিও ভাইরাল

ঘুষ নিচ্ছেন নাজির সাকিব উদ্দিন

কয়েক মাস আগে নিজের কেনা ১৫ শতক জমি খারিজের জন্য ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল উপজেলা ভূমি অফিসে যান উপজেলার কাশীপুর গ্রামের বাসিন্দা সাদ্দাম হোসেন। অফিসের নাজির কাম ক্যাশিয়ার সাকিব উদ্দিন তাঁর কাছে ১৮ হাজার টাকা দাবি করেন। অনেক অনুরোধের পর ১৬ হাজার টাকায় রাজি হন ওই কর্মকর্তা।

একই ধরনের অভিযোগ এ উপজেলার অনেক সেবাগ্রহীতার।

বিজ্ঞাপন

তাঁরা বলছেন, রানীশংকৈল উপজেলা ভূমি অফিসে দীর্ঘদিন ধরে ঘুষ বাণিজ্য চলছে। এ অফিসে জমি খারিজ বা অন্য যেকোনো কাজ টাকা ছাড়া হয় না। সম্প্রতি ওই অভিযুক্ত ভূমি কর্মকর্তার ঘুষ নেওয়ার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে মুখ খুলতে শুরু করেন অনেকেই।

ভুক্তভোগী লোকজন বলেন, উপজেলা ভূমি অফিসে ঘুষ বাণিজ্য নিয়ে একাধিকবার স্থানীয় ভূমি কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসকসহ বিভাগীয় কমিশনার ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের লিখিত অভিযোগ করেও কোনো লাভ হয়নি। বরং এখনো বহাল তবিয়তে ঘুষ বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছেন সাকিব উদ্দিন ও তাঁর সহযোগীরা।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে উপজেলা ভূমি অফিসের অভিযুক্ত নাজির কাম ক্যাশিয়ার সাকিব উদ্দিন ঘুষ নেওয়ার বিষয়টি এড়িয়ে যান। তিনি বলেন, ‘ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি এক বছর আগের। এ বিষয়ে শোকজও করা হয়েছিল তাঁকে। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তাঁকে সামাজিকভাবে হেয় করতে পুনরায় এই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে। ’ 

রানীশংকৈল উপজেলা ভূমি অফিসের নাজির কাম ক্যাশিয়ার সাকিব উদ্দিনের ঘুষ নেওয়ার ভাইরাল ভিডিওটি সম্পর্কে জানতে চাইলে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইন্দ্রজীত সাহা বলেন, ‘ভিডিওটিতে সরকারি চাকরিবিধির পেশাদারিত্বের বিচ্যুতি লক্ষ্য করা গেছে। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে শোকজ করা হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে এর জবাব দিতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। পরে বিধি মোতাবেক অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’ তবে এ ব্যাপারে এখনও কেউ লিখিত অভিযোগ করেননি বলে জানান উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইন্দ্রজীত সাহা।

 

 



সাতদিনের সেরা