kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

দেড় মাসেও যৌন হয়রানির বিচার পাননি ভুক্তভোগী

মাদারীপুর

মাদারীপুর প্রতিনিধি   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাদারীপুরের ডাসারে একটি সরকারি মহিলা কলেজে শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির বিচার না পেয়ে লোকলজ্জার ভয়ে আবাসিক হোস্টেল ছেড়ে বাড়ি চলে গেছে নির্যাতিতা। অভিযুক্ত শিক্ষক এর আগেও এ ধরনের অপকর্মের কারণে একই কলেজ থেকে সাময়িক বহিষ্কৃত হয়েছেন বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী।

ভুক্তভোগীর অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ জুলাই অভিযুক্ত  হিসাববিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক একা প্রাইভেট পড়ানোর কথা বলে কলেজের ২০৪ নম্বর রুমে তাকে ডেকে এনে যৌন হয়রানি করেন। পরে তার চিৎকারে অন্য শিক্ষক ও ছাত্রীরা চলে এলে রক্ষা পায় সে।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় ১ আগস্ট কলেজের অধ্যক্ষ বরাবর বিচার চেয়ে লিখিত দেয় ওই শিক্ষার্থী। কিন্তু ঘটনার বিচার না পাওয়ায় হোস্টেল ছেড়ে বাড়ি চলে যায় ভুক্তভোগী।

কম্পিউটার অপারেটর হাফিজুর রহমান বলেন, ‘বিষয়টি আমি অধ্যক্ষকে জানানোর পর সামাদ স্যার আমার ওপর খেপে যান। তিনি আমার নামে হত্যার হুমকির অভিযোগ এনে ডাসার থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। ’

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী অভিযোগ করে বলে, ‘ঘটনা কাউকে যেন না বলি, সে জন্য স্যার আমার কাছে ক্ষমা চাইছেন। ’

এ বিষয়ে অধ্যক্ষ জাকিয়া সুলতানা বলেন, ‘ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর অভিযোগের ভিত্তিতে গত ৫ সেপ্টেম্বর  অভিযুক্ত শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ। ১৪ সেপ্টেম্বর তিনি নোটিশের জবাব দিয়েছেন। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। নির্দেশনা এলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। ’

অভিযুক্ত শিক্ষক তাঁর বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘আমি ষড়যন্ত্রের শিকার। ’

 

 



সাতদিনের সেরা