kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০২২ । ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

কর্মকর্তার পিটুনিতে হাসপাতালে প্রধান শিক্ষিকা

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি   

১৭ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার পিটুনিতে আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন মহালছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা মৌসুমী ত্রিপুরা। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় সদর উপজেলা শিক্ষা কার্যালয়ে এই মারধরের ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে খাগড়াছড়িতে চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে।

জানা গেছে, প্রধান শিক্ষিকা মৌসুমী ত্রিপুরা (৪৪) তাঁর বিদ্যালয়ের ফটক মেরামতের আবেদন নিয়ে সদর উপজেলা শিক্ষা কার্যালয়ে যান।

বিজ্ঞাপন

সেখানে উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা সুভায়ন খীসার সঙ্গে বাদানুবাদ ও মারধরের এক পর্যায়ে পড়ে গিয়ে দরজায় আঘাত পান প্রধান শিক্ষিকা মৌসুমী ত্রিপুরা। ঘটনার পর শিক্ষা কার্যালয়ের কয়েকজন মিলে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান।

খাগড়াছড়ি আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মিথিলা বড়ুয়া বলেন, ‘রোগীর (মৌসুমী ত্রিপুরা) বাঁ চোখের নিচে আঘাতের চিহ্ন আছে। সেখানে দুটি সেলাই দেওয়া হয়েছে। ’

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রধান শিক্ষিকা মৌসুমী ত্রিপুরা বলেন, তিনি বিদ্যালয়ের সমস্যাসংক্রান্ত একটি আবেদন নিয়ে গেলে সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা সুভায়ন খীসা ক্ষেপে যান এবং তাঁকে মারধর করেন।

অভিযোগ অস্বীকার করে উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা সুভায়ন খীসা বলেন, ‘প্রধান শিক্ষিকা পড়ে গিয়ে দরজায় আঘাত পান। ’ কোর্ট ম্যারেজের কাগজপত্র তাঁর বানানো বলেও দাবি করেন সুভায়ন খীসা।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফাতেমা মেহের ইয়াসমিন জানান, ঘটনার তদন্ত করা হবে।



সাতদিনের সেরা