kalerkantho

শুক্রবার । ৭ অক্টোবর ২০২২ । ২২ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সাবেক অধ্যক্ষের টাকা আত্মসাৎ

রামপাল (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

১৩ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাবেক অধ্যক্ষের টাকা আত্মসাৎ

বাগেরহাটের রামপাল ডিগ্রি কলেজের সাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সাইদুর রহমানের বিরুদ্ধে কলেজের অর্ধকোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভ্যন্তরীণ নিরীক্ষা প্রতিবেদন সূত্রে এ অভিযোগের বিষয়টি জানা গেছে। কলেজের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অভিযোগের বিষয়টি উল্লেখ করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বরাবর আবেদন করলেও অভিযুক্ত সাইদুরের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

অভ্যন্তরীণ নিরীক্ষা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কলেজটির সাবেক অধ্যক্ষ মজনেয়ার রহমান ২০১৬ সালের ২৮ নভেম্বর অবসরে যান।

বিজ্ঞাপন

এরপর কলেজ পরিচালনা পর্ষদ জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘন করে চারজন জ্যেষ্ঠ অধ্যাপককে ডিঙিয়ে ওই দিন থেকে সাইদুর রহমানকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব দেয়। দায়িত্ব পেয়ে ওই সময় বড় ধরনের আর্থিক কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়েন তিনি। এরপর কলেজ পরিচালনা পর্ষদ তড়িঘড়ি করে তাঁকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের পদ থেকে সরিয়ে দিয়ে প্রতিষ্ঠানটির জ্যেষ্ঠ সহকারী অধ্যাপক দ্বীনবন্ধু পালকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব দেয়। দায়িত্ব নিয়েই দ্বীনবন্ধু পাল তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তুষার কুমার পালের কাছে নানা অনিয়ম তুলে ধরে একটি অভিযোগপত্র দেন। ইউএনও ওই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কলেজের সহকারী অধ্যাপক শেখ ইসরাফিল হোসেনকে আহ্বায়ক করে চার সদস্যের একটি অভ্যন্তরীণ অডিট কমিটি গঠন করেন। কমিটি অভ্যন্তরীণ অডিট সম্পন্ন করে ইউএনওর কাছে একটি নিরীক্ষা প্রতিবেদন জমা দেয়। ওই প্রতিবেদনে অভিযুক্ত সাইদুর রহমান কলেজের বেশ কয়েকটি খাত থেকে আয় হয়েছে এমন অন্তত ৪৪ লাখ ৮৮ হাজার ৮৯৪ টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে উল্লেখ করা হয়।

কলেজের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ রেবেকা সুলতানা বলেন, ‘সাইদুর রহমানের আর্থিক অনিয়মের দায় কলেজ কর্তৃপক্ষ নেবে না, সাইদুর রহমানকেই নিতে হবে। এ বিষয়ে  ব্যবস্থা নিতে পরিচালনা পর্ষদ ও ইউএনওকে চিঠি দিয়েছি। ’

অভিযুক্ত সাইদুর রহমান বলেন, ‘একটি পক্ষ আমাকে ফাঁসাতে আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার করছে। ’

 



সাতদিনের সেরা