kalerkantho

রবিবার । ২ অক্টোবর ২০২২ । ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

১০ লাখ টাকার মালপত্র দুই লাখে বিক্রি

বামনায় দরপত্র প্রক্রিয়ায় নিকো কমিটির কারণে রাজস্ব বঞ্চিত হচ্ছে সরকার

বামনা (বরগুনা) প্রতিনিধি   

১১ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বরগুনার বামনায় সার্বক্ষণিক সক্রিয় থাকেন টেন্ডার নিকো কমিটির সদস্যরা। উপজেলা প্রশাসনের কোনো উন্মুক্ত দরপত্র আহবান করা হলে ওই কমিটির সদস্যরা কৌশলে সর্বোচ্চ কম দরে মালপত্র কেনেন। তাঁদের কারণে সম্প্রতি ১০ লাখ টাকার মাল মাত্র দুই লাখ টাকায় বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছে প্রশাসন। ফলে মোটা অঙ্কের রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হয়েছে সরকার।

বিজ্ঞাপন

গত মঙ্গলবার সকালে বামনা উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি অফিস কর্তৃক বুকাবুনিয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের পুরনো ভবন ও পূর্ব বলইবুনিয়া ২০টি আশ্রয়ণ প্রকল্পের টিনশেড ঘরের নিলাম ডাকা হয়। এতে নিকো কমিটির ২৯ জন সদস্য উন্মুক্ত ডাকে অংশ নেন। নেসার উদ্দিন নামের এক সর্বোচ্চ দরদাতা মাত্র দুই লাখ দুই হাজার ৫০০ টাকায় ওই মালপত্র কেনার জন্য নির্বাচিত হন। তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই মালপত্রের দাম ১০ লাখ টাকার ওপরে।

এদিকে অভিযোগ পাওয়া গেছে, ওই নিকো কমিটি কৌশলে কম মূল্যে মালপত্র কিনে তাঁদের নিজেদের মধ্যে আবার নিলাম ডাকেন। সেখানে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে তিন লাখ ৯১ হাজার টাকায় ওই মালপত্র বিক্রি করে দেন। আওয়ামী লীগ নেতা হেমায়েত হোসেন মোল্লা সর্বোচ্চ এই দর দিয়ে মালপত্র কেনেন। ফলে এই নিকো কমিটির কারণে একটি দরপত্রেই কয়েক লাখ টাকার রাজস্ব হারিয়েছে সরকার। উন্মুক্ত দরপত্রসহ ই-টেন্ডার প্রক্রিয়ায়ও এই নিকো কমিটি নিয়ন্ত্রণ করে।

বামনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিবেক সরকার বলেন, ‘তাঁদের নিজেদের মধ্যে সমঝোতা হলে আমাদের কি করার আছে?’



সাতদিনের সেরা