kalerkantho

রবিবার । ২ অক্টোবর ২০২২ । ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ডাস্টবিন নির্মাণ

পাঁচ হাজার টাকার টাইলস লাগিয়ে লাখ টাকা উত্তোলন

নাটোরে পুরনো ডাস্টবিন মেরামত করায় তোপের মুখে ঠিকাদার

নাটোর প্রতিনিধি   

১১ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নাটোর জেলা পরিষদের অর্থায়নে বরাদ্দের এক লাখ টাকা খরচে নতুন ডাস্টবিন নির্মাণে চরম অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। ডাস্টবিন নির্মাণ না করেই লাখ টাকা তুলে নিয়েছেন ঠিকাদার। বিষয়টি নজরে এলে পুরনো ডাস্টবিন মেরামত শুরু করেন ঠিকাদার। পরে স্থানীয়দের তোপের মুখে কাজ বন্ধ করে দ্রুত স্থান ত্যাগ করেন ঠিকাদার নায়মুল সরকার বিলাশ।

বিজ্ঞাপন

নাটোর পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রানা হোসেন জানান, জেলা পরিষদ থেকে ২০২০-২১ অর্থবছরে একটি ডাস্টবিন নির্মাণে এক লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। গত মে মাসে কাজ সমাপ্ত দেখিয়ে বিল তুলে নেন ঠিকাদার। সম্প্রতি ডাস্টবিনের অস্তিত্ব না মেলায় বিষয়টি আলোচনায় আসে। এতে ঠিকাদার নায়মুল সরকার বিলাশ গতকাল থেকে তড়িঘড়ি করে শহরের হুগোলবাড়িয়ায় অবস্থিত পৌরসভার একটি পুরনো ডাস্টবিনে টাইলস লাগিয়ে কাজ করতে থাকেন। নতুন ডাস্টবিনের বরাদ্দের টাকা উত্তোলন করে পুরনো ডাস্টবিন মেরামত করায় স্থানীয়রা তাতে বাধা দেয়।

এ বিষয়ে ঠিকাদার বিলাশের কাছে জানতে চাইলে তিনি কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। পরে তড়িঘড়ি করে সেখান থেকে সটকে পড়েন তিনি।

স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুল হামিদ বলেন, ‘পুরনো একটি ডাস্টবিনে হাজার পাঁচেক টাকার টাইলস বসাচ্ছিলেন ঠিকাদার। তাতেও শুধু বালু দিয়ে কাজ সারছিলেন। কোনো সিমেন্ট দেননি। ’

নাটোর পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি জানান, পৌরসভার ডাস্টবিনে কাজ করতে হলে পৌর কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিতে হয়। কিন্তু নায়মুল সরকার বিলাশ নামের কেউ কোনো অনুমতি নেননি। কাজ না করেই টাকা তুলে নেওয়ার ঘটনাটি দুঃখজনক। অনিয়মকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া দরকার বলে জানান তিনি।

জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী সাইদুল ইসলাম জানান, খতিয়ে দেখা হবে।



সাতদিনের সেরা