kalerkantho

রবিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১০ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ২৮ সফর ১৪৪৪

গৃহবধূকে মাথা ন্যাড়া করে নির্যাতন

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দিনাজপুরের বিরল উপজেলায় যৌতুকের দাবি না মেটানোয় মাথা ন্যাড়া করে এক গৃহবধূকে পাশবিক নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে স্বামী এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে। গত শনিবার মধ্যরাতে উপজেলার রানীপুকুর ইউনিয়নের কাজীপাড়া বিলাইমারী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গতকাল রবিবার ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে থানায় স্বামীসহ তিনজনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করে।

বিজ্ঞাপন

তাঁরা হলেন স্বামী মজিবর রহমান (৩৫), শ্বশুর আব্দুল হাসিম (৬০) এবং শাশুড়ি মনোয়ারা বেগম। ওই দিনই তাঁদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়। নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ বর্তমানে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, প্রায় আট বছর আগে ওই গৃহবধূর বিয়ে হয় মজিবর রহমানের সঙ্গে। বর্তমানে তাঁদের সংসারে ছয় বছর বয়সী একটি কন্যাসন্তান রয়েছে। বিয়ের কিছুদিন পর শ্বশুর ও শাশুড়ির সহযোগিতায় স্বামী দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন; কিন্তু যৌতুকের দাবি মেটাতে না পারায় প্রায়ই তাঁকে নির্যাতন করা হতো। শনিবার দিবাগত মধ্যরাতেও তাঁকে যৌতুকের দুই লাখ টাকার জন্য চাপ দেন স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ি। এক পর্যায়ে তাঁকে পাশবিক নির্যাতন করতে থাকেন তাঁরা। এ সময় তাঁর মাথার চুল কেটে মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া হয়।



সাতদিনের সেরা