kalerkantho

রবিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১০ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ২৮ সফর ১৪৪৪

তীব্র ভাঙনে ব্লক সরে ঝুঁকির মুখে শহর রক্ষা বাঁধ

বরগুনা প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তীব্র ভাঙনে ব্লক সরে ঝুঁকির মুখে শহর রক্ষা বাঁধ

বরগুনার আমতলী উপজেলার পায়রা নদে ভাঙনের মুখে শহর রক্ষা বাঁধের সিসি ব্লক সরে যাওয়ায় মারাত্মক হুমকির মুখে পড়েছে আমতলী পৌর শহর। জানা গেছে, ১৯৯৮ সালে আমতলী পৌর শহরকে পায়রা নদের ভাঙনের হাত থেকে রক্ষায় ফেরিঘাট এলাকা থেকে পাউবো অফিস পর্যন্ত এক হাজার ২০০ মিটার সিসি ব্লক স্থাপন করা হয়। এরপর ঘূর্ণিঝড় সিডর, আইলা, মহাসেন ও রোয়ানু, বুলবুল ও আম্ফানের প্রভাবে সিসি ব্লক সরে ও ভেঙে যায়। এসব কারণে ফেরিঘাট, লঞ্চঘাট, কাঠপট্টি, পুরাতন  লঞ্চঘাট, শ্মশানঘাট ও পানি উন্নয়ন বোর্ড এলাকাসহ শতাধিক বাড়িঘর নদীবক্ষে বিলীন হওয়ার উপক্রম হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

পানি উন্নয়ন বোর্ড ২০১৪ সালে সিডর প্রকল্পে এক হাজার ২০০ মিটার ব্লক মেরামতের কাজ শুরু করে। বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এমবিইএল ১১৫ মিটার পায়রা নদের তীর সংরক্ষণে সিসি ব্লক সংস্কার করে অবশিষ্ট কাজ ফেলে রেখে চলে যায়। এতে আরো হুমকির মুখে পড়ে পৌর শহর।

গত ২৪ বছরে সংস্কার না করায় পায়রার ভাঙনে বেশির ভাগ ব্লক নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। পাশাপাশি বিলীন হয়ে গেছে অনেক স্থাপনাও।

এদিকে বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ড পায়রা নদের ভাঙন রোধে ৫৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে পাঁচ হাজার ২৫০ মিটার ব্লক স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে। তবে আমতলী পৌরসভার এক হাজার ২০০ মিটার পুনো ব্লক সংস্কারের উদ্যোগ নিচ্ছে না পাউবো।

আমতলী পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান বলেন, ‘পায়রা নদের ভাঙনে প্রতিদিনই পৌর শহরের আয়তন ছোট হচ্ছে। ’

তিনি আরো বলেন, ‘এ শহর রক্ষায় তিন কিলোমিটার পায়রা নদের তীরে সিসি ব্লক নির্মাণ করা প্রয়োজন। ’

বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী নুরুল ইসলাম বলেন, ‘শহর রক্ষা বাঁধের ভাঙন রোধে এলাকা পরিদর্শন করে ব্যবস্থা নিচ্ছি। ’



সাতদিনের সেরা