kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ আগস্ট ২০২২ । ১ ভাদ্র ১৪২৯ । ১৭ মহররম ১৪৪৪

নেত্রকোনার মদন

মদনে শ্রমিকদের মজুরির টাকা আত্মসাৎ

পাওনা টাকা চাওয়ায় উল্টো শ্রমিকদের প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছেন গোবিন্দশ্রী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাইদুল ইসলাম খান মামুন

মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি   

৬ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নেত্রকোনার মদনে কর্মসৃজন কর্মসূচির (ইজিপিপি) শ্রমিকদের মজুরির টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার গোবিন্দশ্রী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাইদুল ইসলাম খান মামুনের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে। মজুরির টাকা চাওয়ায় উল্টো শ্রমিকদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন বলে গত বৃহস্পতিবার সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছেন ২৩ জন শ্রমিক।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, চেয়ারম্যান মামুন কর্মসৃজন কর্মসূচির শ্রমিকদের নামে অ্যাকাউন্ট করা সিম কার্ড নিজের কাছে জিম্মি রাখেন।

বিজ্ঞাপন

পরে জিম্মি রাখা সিম কার্ডে আসা মজুরির টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেন তিনি। মজুরির টাকা ফেরত চাইলে উল্টো শ্রমিকদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন। এ নিয়ে ওই ইউনিয়নের শ্রমিক সর্দার শাজাহানসহ ভুক্তভোগী ২৩ জন শ্রমিক সরকারে বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

শ্রমিকরা জানান, দুটি প্রকল্পে ৭৪ জন শ্রমিক কাজ করেছেন। তাঁদের সিম কার্ডে মজুরি দেওয়া হয়েছে ১৯ দিনের। কিন্তু তাঁরা হাতে পেয়েছেন মাত্র পাঁচ দিনের টাকা। বাকি টাকা আত্মসাৎ করেছেন চেয়ারম্যান ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

জানতে চাইলে গোবিন্দশ্রী ইউপি চেয়ারম্যান মাইদুল ইসলাম খান মামুন বলেন, ‘শ্রমিকদের অ্যাকাউন্টের সিম কার্ড আমার কাছে ছিল না। সিম কার্ড জিম্মি রেখে টাকা তুলেছেন শ্রমিক সর্দার শাজাহান। ’

অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শওকত জামিল বলেন, ‘দ্বিতীয় ধাপে ৪০ দিনের কাজ বাস্তবায়িত হয়নি। যত দিন কাজ হয়েছে তত দিনের বিল পরিশোধ করা হয়েছে। বাকি টাকা ফেরত পাঠানো হয়েছে। অভিযোগটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’

ইউএনও লুত্ফর রহমান জানান, শ্রমিকদের টাকা আত্মসাতের অভিযোগটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 



সাতদিনের সেরা