kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ আগস্ট ২০২২ । ১ ভাদ্র ১৪২৯ । ১৭ মহররম ১৪৪৪

জাজিরা

ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পূর্ব নাওডোবা ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা আব্দুস সালাম খানের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে

শরীয়তপুর প্রতিনিধি   

৬ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শরীয়তপুরের জাজিরার পূর্ব নাওডোবা ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা আব্দুস সালাম খানের (৫২) বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

গত বৃহস্পতিবার দুদকের মাদারীপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আখতারুজ্জামান বাদী হয়ে মামলাটি করেন। আব্দুস সালাম শরীয়তপুর পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ বালুচরা গ্রামের বাসিন্দা।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালে লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দুদকের ফরিদপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক কমলেশ মণ্ডল ২০১০ সালে আব্দুস সালামের সম্পদের অনুসন্ধান শুরু করেন।

বিজ্ঞাপন

আব্দুস সালাম তখন নড়িয়ার ভোজেশ্বর ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা ছিলেন।

দুদকের অনুসন্ধান শুরু হলে জেলা প্রশাসন থেকে তাঁকে প্রথমে সদরের চন্দ্রপুর ইউনিয়নে পরে জাজিরার পূর্ব নাওডোবা ইউনিয়নে বদলি করা হয়।

দুদকের অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তার প্রতিবেদন অনুযায়ী, আব্দুস সালাম খান যে সম্পদের হিসাব দাখিল করেছেন তাঁর সম্পদ বিবরণীতে স্থাবর সম্পদ ও অস্থাবর সম্পদ মিলে ২৬ লাখ ৭০ হাজার ৪৯ টাকা মূল্যের সম্পদ গোপন করেছেন। এ ছাড়া তিনি ১২ লাখ ৬১ হাজার ৪৪৩ টাকা মূল্যের জ্ঞাত আয়ের উৎসবহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও দখলে রেখেছেন।

এ অবস্থায় গত ২০ জুলাই দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করার অনুমোদন দেওয়া হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ১ আগস্ট দুদকের মাদারীপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয় থেকে মামলা করার জন্য একজন কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মো. পারভেজ হাসান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘দুদক থেকে সহকারী ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে—এমন কোনো লিখিত কপি হাতে পাইনি। মামলা হয়ে থাকলে অবশ্যই তাঁর বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’



সাতদিনের সেরা