kalerkantho

শনিবার । ২০ আগস্ট ২০২২ । ৫ ভাদ্র ১৪২৯ । ২১ মহররম ১৪৪৪

বেগমগঞ্জ আ. লীগ নেতা হত্যা

বিদেশে পালানোর সময় আসামি গ্রেপ্তার

গত বছরের ২৮ অক্টোবর আবু ছায়েদ রিপন খুন হন

নোয়াখালী প্রতিনিধি   

৩ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে পরিবহন ব্যবসায়ী ও আওয়ামী লীগ নেতা আবু ছায়েদ ভূঁঞা রিপন হত্যাকাণ্ডের ২ নম্বর আসামি ইকবাল হোসেন সাইফুলকে (৩২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় বিদেশে পালিয়ে যাওয়ার সময় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার সাইফুল উপজেলার মীরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের তালুয়া চাঁদপুর গ্রামের তবারক উল্লাহর ছেলে।

বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি মীর জাহিদুল হক রনি গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গত বছরের ২৮ অক্টোবর গভীর রাতে বেগমগঞ্জের চৌরাস্তায় অবস্থিত লাল সবুজ পরিবহনের কাউন্টারের ব্যবস্থাপক ও উপজেলার মিরওয়ারিশ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ১ নম্বর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু ছায়েদ রিপন খুন হন।

বিজ্ঞাপন

এ সময় তাঁর কাছে থাকা আড়াই লাখ টাকা নিয়ে যায় হত্যাকারীরা। পরের দিন পরিবারের পক্ষ থেকে বেগমগঞ্জ থানায় অভিযোগ দেওয়া হলে তদন্তে নামে পুলিশ। এক পর্যায়ে ঘটনার সঙ্গে সাইফুলের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেলে তিনি এলাকা ছেড়ে গাঢাকা দেন। পরে সাইফুলকে হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পকারী হিসেবে শনাক্ত করার পর তাঁকে ২ নম্বর আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়। এরপর তাঁকে ধরার জন্য পুলিশ দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা চালাচ্ছিল। তিনি যেন দেশের বাইরে যেতে না পারেন সে জন্য দেশের বিভিন্ন স্থানে ইমিগ্রেশন পুলিশকেও জানানো হয়।

ওসি রনি আরো বলেন, শুক্রবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি সাইফুল দেশে থেকে পালিয়ে যেতে বিমানবন্দর এলাকায় অবস্থান করছেন। ওই সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার বিকেলে বিমানবন্দর এলাকায় অভিযান চালিয়ে সাইফুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের পর তাঁকে থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ হত্যাকাণ্ডটি চাঞ্চল্যকার চিহ্নিত করে এর আগে চারজনকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয় বলেও জানান ওসি।



সাতদিনের সেরা