kalerkantho

রবিবার । ১৪ আগস্ট ২০২২ । ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৫ মহররম ১৪৪৪

অস্ত্র হাতে ভাইরাল সেই বায়েজিদ গ্রেপ্তার

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি   

১ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অস্ত্র হাতে ভাইরাল সেই বায়েজিদ গ্রেপ্তার

গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগ-বিএনপির সংঘর্ষের সময় অস্ত্র হাতে বায়েজিদ আহম্মেদ টরি। ফাইল ছবি

পিস্তল দেখিয়ে গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও এবং ছবি ভাইরাল হওয়া সেই অস্ত্রধারী বায়েজিদ আহম্মেদ টরিকে (১৯) পিস্তল, গুলিসহ গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। গত বুুধবার রাতে সদর উপজেলার শিয়ালকোল বাজার থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি শহরের একডালা মধ্যপাড়ার আজিম উদ্দিনের ছেলে। ছয় মাস আগে সিরাজগঞ্জ শহরে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালে তিনি আলোচনায় আসেন।

বিজ্ঞাপন

গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক খোকন চন্দ্র সরকার জানান, গ্রেপ্তার বায়েজিদ মাদকের (ড্যান্ডি) নেশায় আসক্ত। অস্ত্র হাতে তিনি শহরের জেলখানা ঘাট ও হার্ডপয়েন্টসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে ত্রাস করে বেড়াতেন। কিন্তু অপরাধ করেই তিনি গাঢাকা দিয়ে গ্রেপ্তার এড়িয়ে চলতেন। তাঁর বিরুদ্ধে দাঙ্গা-হামলা ও মারধরের পাঁচটি মামলা রয়েছে। পাঁচ দিন আগেও তিনি স্লুইস গেট এলাকার পলাশ নামে একজনকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছেন। আহত পলাশ হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তাঁর স্বজনরাও মামলা করেছেন। পিস্তল, গুলিসহ গ্রেপ্তারের ঘটনায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে তাঁকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশে যাওয়ার পথে সরকারি কলেজ রোডে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। ওই সংঘর্ষ চলাকালে তিন ব্যক্তি পিস্তল প্রদর্শন করায় গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি ও ভিডিও ভাইরাল হয়। কয়েক দিনের ব্যবধানে শহরের কোল গয়লা মহল্লার সুমন খলিফা ও জনি হাজামকে পিস্তল, ককটেল বোমাসহ গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ। কিন্তু বায়েজিদ এত দিন অধরা ছিল। সংঘর্ষের বিষয়ে ওই সময়ে পুলিশ, আওয়ামী লীগ ও বিএনপির পক্ষ থেকে ৯টি মামলা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা