kalerkantho

শুক্রবার । ১২ আগস্ট ২০২২ । ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৩ মহররম ১৪৪৪

স্ত্রী-শাশুড়িসহ তিন হত্যা

আদালতে স্বীকারোক্তি অনুতপ্ত নন জামাতা

শেরপুর প্রতিনিধি   

২৬ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেরপুরের শ্রীবরদীতে স্ত্রী-শাশুড়িসহ তিনজনকে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন মামলার আসামি মিজানুর রহমান ওরফে মিন্টু মিয়া (৪০)। তবে ওই হত্যার ঘটনায় অনুতপ্ত নন বলে মন্তব্য করেছেন মিন্টু। গতকাল শনিবার শ্রীবরদী থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস ও শেরপুরের আদালত পরিদর্শক শহীদুল হক এ তথ্য জানিয়েছেন।

ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস জানান, শ্রীবরদীর কাকিলাকুড়া ইউনিয়নের খোশালপুর পটল গ্রামে ট্রিপল মার্ডারের প্রধান আসামি মিজানুর রহমান মিন্টু দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারেক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

গত শুক্রবার বিকেলে শেরপুরের বিচারিক হাকিম নূর-ই-জাহিদের কাছে স্বেচ্ছায় মিন্টু ওই জবানবন্দি দেন। পরে তাঁকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এর আগে শুক্রবার ভোরে অভিযান চালিয়ে শ্বশুরবাড়ির পাশেই একটি গাছের ওপর থেকে মিন্টুকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে হত্যাকাণ্ডের পর পরই গাঢাকা দেন মিন্টু মিয়া। তাঁকে ধরতে পুলিশ, র‌্যাব ও একাধিক আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী একযোগে সাঁড়াশি অভিযানে নামে। মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং করে কাকিলাকুড়া গ্রাম ঘিরে ফেলে পুলিশ। এক পর্যায়ে তারা দেখতে পায় যে একটি গাছের ডালের ওপর বসে আছে মিন্টু। পরে তাঁকে গাছ থেকে নামিয়ে এনে গ্রেপ্তার এবং হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দা ও ছুরি উদ্ধার করা হয়। তবে মামলার অন্য তিন আসামি পলাতক রয়েছেন।

এদিকে নিহত তিনজনের ময়নাতদন্ত শেষে লাশ হস্তান্তরের পর শুক্রবার নিজ এলাকায় দাফন সম্পন্ন হয়েছে। হামলায় আহত হয়ে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অন্য তিনজনের মধ্যে মিন্টুর শ্বশুর মনু মিয়ার অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা।



সাতদিনের সেরা