kalerkantho

শুক্রবার । ১২ আগস্ট ২০২২ । ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৩ মহররম ১৪৪৪

বসতঘরে হামলা করে শিশু ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি   

২৪ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে গৃহবধূ ছাবিনা বেগম ও তাঁর শিশুসন্তানকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে এক প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে। পুলিশ এই ঘটনায় অভিযুক্ত আব্দুল মালেককে আটক করে বৃহস্পতিবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার আওনা ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামে গত মঙ্গলবার দুপুরে মঞ্জুরুল ইসলামের স্ত্রী ছাবিনা বেগম ঘরে বসে ৪০ দিনের শিশুসন্তানকে দুধ খাওয়াচ্ছিলেন। এ সময় প্রতিবেশী আব্দুল মালেক ও তাঁর পরিবারের লোকজন মঞ্জুরুল ইসলামের বসতঘরে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর শুরু করে।

বিজ্ঞাপন

এতে ছাবিনা বাধা দিলে তাঁর কোলের শিশুসন্তানকে ছিনিয়ে নিতে চেষ্টা করে। সন্তানকে বুকে জড়িয়ে ধরে রক্ষার চেষ্টা করলে তারা ছাবিনাকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে। পরে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা দৌড়ে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা ছাবিনা ও তাঁর শিশুসন্তানকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এই ঘটনায় ছাবিনা বেগমের স্বামী মঞ্জুরুল ইসলাম বাদী হয়ে আব্দুল মালেককে প্রধান আসামি করে চারজনের নামে থানায় মামলা করেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামি আব্দুল মালেককে তাঁর নিজ বাড়ি থেকে বুধবার রাতে গ্রেপ্তার করে।

তারাকান্দি পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ আব্দুল লতিফ জানান, গৃহবধূ ছাবিনা ও তাঁর শিশুসন্তানকে মারধরের ঘটনায় প্রধান আসামি আব্দুল মালেককে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে আদালতের মাধ্যমে তাঁকে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

 



সাতদিনের সেরা