kalerkantho

বুধবার । ২৯ জুন ২০২২ । ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৮ জিলকদ ১৪৪৩

মণিরামপুর হাসপাতালে শয্যা বেড়েছে, সেবা বাড়েনি

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি   

২৪ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মণিরামপুর হাসপাতালে শয্যা বেড়েছে, সেবা বাড়েনি

মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। ছবি : কালের কণ্ঠ

যশোরের মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীত হয়েছে আট বছর আগে। পাঁচ লাখ মানুষের স্বাস্থ্যসেবার জন্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটির শয্যাসংখ্যা বাড়লেও বাড়েনি এর সেবার মান। প্রয়োজনীয় ওষুধ, চিকিৎসক এবং লোকবল না থাকায় উন্নতি হয়নি এখানকার চিকিৎসাব্যবস্থার।

রোগীদের অভিযোগ, ৫০ শয্যা তো দূরের কথা, ৩১ শয্যার লোকবলেরই সংকট দীর্ঘদিনের।

বিজ্ঞাপন

পাওয়া যায় না এক্স-রে, আলট্রাসনো সেবা; মেলে না বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ। রোগীদের মানসম্মত খাবার না পাওয়ারও অভিযোগ রয়েছে।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, সেখানে দুটি আলট্রাসনো যন্ত্র রয়েছে। তবে দুটিই দীর্ঘদিন ধরে বিকল। টেকনিশিয়ানের অভাবে কাজে আসছে না এক্স-রে যন্ত্রও। ১০টি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পদের বিপরীতে আছেন মাত্র দুজন। এর মধ্যে কাগজে-কলমে মেডিসিন বিশেষজ্ঞ জাহাঙ্গীর হোসেনের পদায়ন হলেও তিনি কাজ করেন সদর হাসপাতালে। অ্যানেসথেসিয়া চিকিৎসক মুজাহিদুলকে কেশবপুর হাসপাতালে দিয়ে সেখানকার প্রসূতি চিকিৎসক আয়েশা আক্তারকে তিন দিন মণিরামপুরে এনে সপ্তাহে রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার চলে অস্ত্রোপচারের (সিজার) কাজ।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা তন্ময় বিশ্বাস বলছেন, ‘আগামী উপজেলা স্বাস্থ্যবিষয়ক কমিটির সভায় বিষয়গুলো তুলে ধরা হবে। এরই মধ্যে এসব বিষয় আমি অধিদপ্তরকে জানিয়েছি। ’

 

 



সাতদিনের সেরা