kalerkantho

বুধবার । ২৯ জুন ২০২২ । ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৮ জিলকদ ১৪৪৩

ঘর ও বয়স্ক ভাতার নামে অর্থ আদায়

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

২৪ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলা পরিষদের পিয়ন আল-আমিনের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর ও সুবিধাভোগীদের বয়স্ক ভাতা করে দেওয়ার কথা বলে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে দুজন ভুক্তভোগী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে পৃথক দুটি অভিযোগ করেছেন। অভিযোগ দুটি তদন্তের জন্য উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন ইউএনও আয়েশা সিদ্দীকা। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন আল-আমিন।

বিজ্ঞাপন

গত ২৬ মে উপজেলার অমরপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা জুয়েল ইসলাম ও গত ৩১ মে একই ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের বাসিন্দা বিজন রায় ইউএনও বরাবর অভিযোগ করেছেন।

জুয়েল ইসলাম অভিযোগ করেন, তাঁর ফুফু সাহেবা বেগমের স্বামী এবং সন্তান না থাকায় ২০২০ সালে তাঁর বয়স্ক ভাতা করার জন্য উপজেলার চেয়ারম্যানের নিকট যান। পিয়ন বয়স্ক ভাতা করে দিতে টাকা চান। ওই বছর দুই দফায় আল-আমিনকে মোট ১২ হাজার টাকা প্রদান করা হয়। তবে টাকা গ্রহণের পর দুই বছর যাবৎ তিনি ঘোরাচ্ছেন। টাকা চাইলে বিভিন্ন ধরনের হুমকি ও ভয়ভীতি প্রদান করছেন।

অন্য ভুক্তভোগী বিজন রায়ের অভিযোগ, ‘গত বছর ইউএনও কার্যালয়ে গেলে পিয়ন আল-আমিন একটি ঘর নিয়ে দেবেন বলে ২১ হাজার টাকা দাবি করেন। পরে আমি তাঁর দাবীকৃত টাকাগুলো দিই; কিন্তু টাকা দেওয়ার এক বছর পার হলেও আমাকে পাকা বাড়িও দিচ্ছেন না এবং টাকাও ফেরত দিচ্ছে না। টাকা চাইতে গেলে তিনি আমাকে হুমকি প্রদর্শন করছেন। ’

এ ব্যাপারে চিরিরবন্দরের ইউএনও আয়েশা সিদ্দীকা বলেন, ‘তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলে সেই অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ’



সাতদিনের সেরা