kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৩০ জুন ২০২২ । ১৬ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৯ জিলকদ ১৪৪৩

ছোট ছুুরি নিয়ে চিন্তায় পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৯ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছোট ছুুরি নিয়ে চিন্তায় পুলিশ

চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগরীর সর্বশেষ তিনটি হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত হয়েছে ছোটো ছুরি। যা পুলিশকে রীতিমতো চিন্তায় ফেলে দিয়েছে। কারণ, এই ছুরি বিক্রি করা নিষিদ্ধ নয়।

দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী, ১২ ইঞ্চির বড় ছুরি কিংবা চাকু বিক্রি করা নিষিদ্ধ।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু এর চেয়ে ছোট ছুরি বৈধ। রান্নার কাজসহ বিভিন্ন কাজে ব্যবহৃত এসব ছুরি এখন নান্দনিকরূপে বাজারে এসেছে। এর মধ্যে কিছু ছুরি সাধারণ কাজের পরিবর্তে ব্যবহৃত হচ্ছে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায়।

চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন মার্কেটে প্রকাশ্যে বিক্রি হচ্ছে চাকচিক্য ও দৃষ্টিনন্দন এসব অস্ত্র। ফলে হাত বাড়ালেই অপরাধীরা ছুরি কিনতে পারছে। আর আইনের ফাঁক গলে তা পকেটে রেখে ঘোরাফেরা করার সুযোগ পাচ্ছে। ছিনতাইকারী-ডাকাতরা তো দেশী অস্ত্র হিসেবে ছুরির অবাধ ব্যবহার করছে বহুকাল আগে থেকে। আবার এখনকার তরুণ-কিশোররা ‘বীরত্ব’ দেখানোর জন্য ছুরি সঙ্গে রাখছে। আর তুচ্ছ ঘটনায় একে অন্যকে ছুরিকাঘাত করছে।

সর্বশেষ গত ২২ এপ্রিল রাতে চট্টগ্রাম মহানগরীর কোতোয়ালি থানার চেরাগী পাহাড় এলাকায় কলেজছাত্র আসকার বিন তারেক (১৮) ছুরিকাঘাতে নিহত হন। একই রাতে চট্টগ্রামের পটিয়া থানার কালিয়াইশ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেমের ছোট ভাই মোহাম্মদ সোহেল (৩৬) মারা যান ছুরিকাঘাতে। একই ঘটনায় ছুরিকাঘাতের শিকার আরো তিনজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এর আগে ১৫ এপ্রিল রাতে চট্টগ্রাম মহানগরীর পাহাড়তলী থানা এলাকায় ছুরিকাঘাতে মারা যায় স্কুলছাত্র ফাহিম। সেই ঘটনায় গ্রেপ্তার এক কিশোরের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছোরাটি।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কর্মকর্তাদের ভাষ্য অনুযায়ী, অপরাধের ঘটনায় করা মামলায় আলামত উদ্ধারচিত্র পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, সর্বাধিক সংখ্যক ঘটনায় ছুরি ব্যবহৃত হচ্ছে। বলা চলে, অপরাধের সঙ্গে ছুরির ব্যবহার একাকার হয়ে যাচ্ছে। সহজলভ্য বিদেশি চাকচিক্যপূর্ণ ছুরিগুলো অপরাধের ঘটনায় অকল্পনীয় নেতিবাচক ভূমিকা রাখছে।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (পশ্চিম) আবদুল ওয়ারীশ বলেন, ‘সম্প্রতি বেশ কিছু অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের রহস্য উম্মোচনের পর দেখা গেছে, মূলত ছোট আকারের ছুরি ব্যবহৃত হয়েছে। বীরত্ব দেখানোর জন্য ছোট ছুরি নিয়ে ঘুরছে কিছু কিশোর। তারা তুচ্ছ ঘটনায় সংঘাতে জড়াচ্ছে। আকারে ছোট হওয়ার কারণে অস্ত্র ব্যবহারের পর আলামত নষ্টের জন্য সহজে নালা-নর্দমায় ফেলে দেওয়া হচ্ছে। ’



সাতদিনের সেরা