kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০২২ । ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রংপুরের কাউনিয়া

শিশুর শরীরে সুই ফুটিয়ে নির্যাতন

চোর সন্দেহে দুই শিশুকে মারধরের অভিযোগ ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে

পীরগাছা (রংপুর) প্রতিনিধি   

২৮ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চোর সন্দেহে শরীরে সুই ফোটানোসহ দুই শিশুকে নির্যাতন করা হয়েছে। রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার রাজিব মোল্লাটারী গ্রামে গত বুধবার এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গত মঙ্গলবার রাতে আকরাম হোসেনের ঘরে সিঁধ কেটে ৭০ হাজার টাকা নিয়ে যায় চোরেরা। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গত বুধবার সকালে শামীম হোসেন (১০) ও রাসেলকে (৯) বাড়ি থেকে ডেকে আনেন আকরাম ও তাঁর ভাই ইয়াকুব আলী।

বিজ্ঞাপন

এরপর টেপামধুপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য ইউনুস আলী দুই শিশুকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন করেন। বিষয়টি জানাজানি হলে ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশের সহযোগিতা চায় স্থানীয়রা। পুলিশ বিকেলে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ইউনুস আলীর বাড়ি থেকে দুই শিশুকে উদ্ধার করে পরিবারের জিম্মায় দেয়।

শিশু শামীম বলে, ‘হাত-পা বেঁধে মেরেছে ইউনুস মেম্বার। তাঁর পা ধরে বলেছিলাম, আমি টাকা চুরি করি নাই। আমার কোনো কথাই শোনেনি। কোমর থেকে পা পর্যন্ত গাছের ডাল দিয়ে মারপিট করেছে। ’

ইউপি সদস্য ইউনুস আলী বলেন, ‘আমি মারপিট করিনি। আকরাম ও ইয়াকুবের বাড়িতে দুই শিশুকে মারপিট করা হয়েছে। ’ আকরাম হোসেন বলেন, ‘প্রথমে শামীমকে নিয়ে আসা হয়। পরে মেম্বারের কথামতো রাসেলকে আনা হয়। তাদের মেম্বারের বাড়িতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। মেম্বার চুরি যাওয়া টাকা উদ্ধারের জন্য শিশু দুইজনকে মারপিট করেছেন। ’

রংপুরের পুলিশ সুপার ফেরদৌস আলী চৌধুরী বলেন, ‘বিষয়টি আমি জেনেছি। এ ঘটনায় কাউনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে আইনগত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছি। ’



সাতদিনের সেরা