kalerkantho

মঙ্গলবার ।  ২৪ মে ২০২২ । ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২২ শাওয়াল ১৪৪৩  

নির্বাচনে হেরে চেয়ার নিয়ে গেলেন সদস্য প্রার্থী

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

২৭ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নির্বাচনে হেরে চেয়ার নিয়ে গেলেন সদস্য প্রার্থী

নান্দাইলে ভোটে হেরে অনুদানের চেয়ার নিয়ে যাচ্ছেন বিদায়ী ইউপি সদস্য মো. আব্দুর রশিদ। ছবি : কালের কণ্ঠ

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে হেরে যাওয়ার ক্ষোভে প্রায় সাত বছর আগে একটি ক্লাবকে দেওয়া অনুদানের পাঁচটি প্লাস্টিকের চেয়ার ফেরত নিলেন এক ইউপি সদস্য প্রার্থী। সদ্যঃসমাপ্ত পঞ্চম ধাপের নির্বাচনে তিনি ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার ৯ নম্বর আচারগাঁও ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ইউপি সদস্য পদে নির্বাচন করে পাঁচজনের মধ্যে সর্বশেষ হন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার মো. আব্দুর রশিদ ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য থাকাকালে স্থানীয় সংদই টাইগার ক্লাব নামের একটি অরাজনৈতিক ক্লাবে অনুদান হিসেবে পাঁচটি প্লাস্টিকের চেয়ার দিয়েছিলেন। এরপর চলে আসে ইউপি নির্বাচন।

বিজ্ঞাপন

এবারও তিনি প্রার্থী হয়েছিলেন।

এ অবস্থায় ওই ক্লাবের সভাপতির চাচাও একই ওয়ার্ড থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে জয়ী হন। এ নিয়ে ক্ষুব্ধ হন পরাজিত প্রার্থী আব্দুর রশিদ মেম্বার।

তিনি  ক্লাবের সভাপতিকে বলেন, তাঁর দেওয়া চেয়ারগুলো ফেরত দিতে। এক পর্যায়ে ক্লাবের সবাই সম্মতি দেন, রশিদ মেম্বারের চেয়ারগুলো ফেরত দেওয়ার। এ অবস্থায় গত মঙ্গলবার বিকেলে রশিদ নিজে এসে চেয়ারগুলো

বহন করে নিয়ে যান। ওই সময় উপস্থিত লোকজন হতবিহ্বল হয়ে পড়েন।

ক্লাবের সভাপতি মো. অনিক হাসান বলেন, ‘নির্বাচনে রশিদ ফেল করায় ক্ষুব্ধ হয়ে প্রচার করেন ক্লাবের লোকজন নির্বাচনে তাঁর পক্ষে কাজ করেনি। এই অভিযোগ করে তিনি চেয়ার ফেরত চান। পরে কোনো ধরনের ঝামেলায় না গিয়ে চেয়ারগুলো ফেরত দেওয়া হয়। ’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আব্দুর রশিদ বলেন, ‘চেয়ারগুলো দেওয়ার সময় তারা (ক্লাবের সদস্য) বলেছিল, তারা সকলেই আমার হয়ে কাজ করবে। কিন্তু প্রকাশ্যে তারা অন্য একজনের হয়ে কাজ করেছে। ’



সাতদিনের সেরা