kalerkantho

শনিবার ।  ২১ মে ২০২২ । ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩  

আওয়ামী লীগের দুই নেতার ওপর পাল্টাপাল্টি হামলা

ঝালকাঠি প্রতিনিধি   

১৬ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ঝালকাঠির নলছিটিতে আওয়ামী লীগের দুই নেতার ওপর পাল্টাপাল্টি হামলা হয়েছে। গত শুক্রবার বিকেলে ও সন্ধ্যায় হওয়া এ হামলায় তাঁরা দুজনই আহত হয়েছেন।

হামলার শিকার একজন ঝালকাঠি জেলা পরিষদের সদস্য ও নলছিটি উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ইঞ্জিনিয়ার জে এম হাতেম এবং অন্যজন হলেন নলছিটি উপজেলার রানাপাশা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক শাহজাহান হাওলাদার। পাল্টাপাল্টি এ হামলায় উভয় পক্ষের আরো তিনজন আহত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় নলছিটি থানায় শুক্রবার রাতেই পাল্টাপাল্টি মামলা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ইঞ্জিনিয়ার জে এম হাতেমের সঙ্গে শাহজাহান হাওলাদারের দীর্ঘদিনের বিরোধ। গত শুক্রবার বিকেলে রানাপাশা ইউপি কার্যালয়ের পাশে ইঞ্জিনিয়ার হাতেমের ওপর হামলা করে ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান হাওলাদার ও তাঁর সমর্থকরা। এতে আহত হন জে এম হাতেম। এর জের ধরে ওই দিন সন্ধ্যায় নলছিটি লঞ্চঘাট থেকে ঢাকায় যাওয়ার পথে শাহজাহান হাওলাদার ও তাঁর কয়েকজন সমর্থকের ওপর পাল্টা হামলা চালায় ইঞ্জিনিয়ার হাতেমের লোকজন। এতে শাহজাহান হাওলাদারসহ তিনজন আহত হন। আহত ব্যক্তিদের মধ্যে মন্টু নামের এক ইউপি সদস্যকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে শাহজাহান হাওলাদার বলেন, ‘ইঞ্জিনিয়ার হাতেমের বিরুদ্ধে এক নারী লিখিত অভিযোগ দেন ইউনিয়ন পরিষদে। উনি জেলা পরিষদের সদস্য হওয়ায় তাঁর প্রতি সম্মান জানিয়ে লিখিত নোটিশ না দিয়ে তাঁকে ফোনে বিষয়টি মীমাংসা করে নিতে বলেছিলাম। এতে তিনি খেপে গিয়ে লোকজন নিয়ে আমাদের ওপর হামলা করেন। ’

ইঞ্জিনিয়ার জে এম হাতেম বলেন, ‘শাহজাহান হাওলাদার ও আমার মধ্যে কোনো বিরোধ নেই। অথচ তিনি আমাকে সহ্য করতে পারেন না। আমার বিরুদ্ধে এক নারীকে দিয়ে মিথ্যা অভিযোগ করিয়েছেন। এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে তিনি ও তাঁর পরিষদের লোকজন আমার ওপর হামলা করেন। ’

নলছিটি থানার ওসি মো. আতাউর রহমান বলেন, দুই পক্ষই হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মামলা করেছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সাতদিনের সেরা