kalerkantho

শনিবার ।  ২১ মে ২০২২ । ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩  

মহেশ্বরপাশা ভবনটি প্রত্নতত্ত্ব বিভাগে হস্তান্তরের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা   

১৬ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



একটি শহর বা সমাজ গড়ে ওঠার ক্ষেত্রে ভবনগুলো সময়কে ধারণ করে। খুলনা মহানগরীর ‘মহেশ্বরপাশা স্কুল আর্ট’ তেমন একটি ভবন। শিল্পী শশিভূষণ পালের একান্ত ইচ্ছায় গড়ে ওঠা এই প্রতিষ্ঠানটির প্রথম ভবন এটি। এই ভবনকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের চিত্রশিল্প শিক্ষার আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু।

বিজ্ঞাপন

প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ এই ঐতিহাসিক ভবন রক্ষায় যথোপযুক্ত প্রতিষ্ঠান, তাদেরই একে রক্ষার দায়িত্ব দিতে হবে বলে দাবি উঠেছে।

গতকাল শনিবার খুলনা শহরের প্রাণকেন্দ্র পিকচার প্যালেস মোড়ে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা এ দাবি জানান। গুণীজন স্মৃতি পরিষদ, জনউদ্যোগ খুলনা ও চারুশিল্পী সংসদের যৌথ আয়োজনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

প্রত্নতত্ত্ব বিভাগকে ভবনটির দায়িত্ব দেওয়ার দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, ‘আড়াই হাজার বছরের অধিক সময় থেকে এ দেশে বিভিন্ন জনগোষ্ঠী ও শাসকশ্রেণি গড়ে তোলে বসতি, নগর, ইমারত, প্রাসাদ, দুর্গ, মসজিদ, মন্দির, বিহার, স্তূপ, সমাধিসৌধ প্রভৃতি অসংখ্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য। এসব সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের বেশির ভাগই বিলীন হয়েছে। আমরা এরই মধ্যে শত বছরের ঐতিহ্য পৌরভবন, ডাকবাংলো ভবন, ডেপুটি পোস্টমাস্টার জেনারেলের কার্যালয় ভবন, একাত্তরের নির্যাতন কেন্দ্র (হেলিপোর্টের বিশ্রামকেন্দ্র) হারিয়ে ফেলেছি। ’



সাতদিনের সেরা