kalerkantho

সোমবার । ৩ মাঘ ১৪২৮। ১৭ জানুয়ারি ২০২২। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

লাশবাহী গাড়িতেও টোল দাবি, সংঘর্ষে আহত ২

ঝালকাঠি প্রতিনিধি   

৩০ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঝালকাঠির নলছিটিতে লাশবাহী গাড়িতে টোল দাবি নিয়ে সংঘর্ষে দুজন আহত হয়েছেন। গতকাল সোমবার দুপুরে শহরের মল্লিকপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, উপজেলার কুলকাঠি ইউনিয়ন যুবলীগের নেতা এইচ এম সজিব বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে তাঁর চাচার লাশ নিয়ে অ্যাম্বুল্যান্সে গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। শহরের মল্লিকপুর এলাকায় এলে পৌর টোল আদায়কারীরা লাশবাহী গাড়িটি থামার সংকেত দেন। এ সময় টোল নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে টোল আদায়কারীরা লাশবাহী গাড়িতে থাকা কয়েকজনকে মারধর করে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হলে টোল আদায়কারী মো. রাজা ও আল আমিনের মাথা ফেটে যায়। তাঁদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় রাজাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

কুলকাঠি ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক এইচ এম সজিব বলেন, ‘পৌর টোল আদায়ের নামে কয়েকজন যুবক চাঁদাবাজি করে। আমার চাচা খালেক হাওলাদারের লাশ নিয়ে বরিশাল থেকে চারটি মাহিন্দ্রা গাড়ি, একটি অ্যাম্বুল্যান্স ও একটি পিকআপ নিয়ে কুলকাঠি গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছিল। টোল দিতে বিলম্ব হওয়ায় আদায়কারীরা বরিশাল থেকে আসা লোকজনের গায়ে হাত তোলে। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে আমাদের কয়েকজন লোককে মারধর করা হয়েছে।’

নলছিটি পৌর টোল আদায়কারী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি পারভেজ হোসেন হান্নান বলেন, লাশের গাড়ি অনেক পেছনে ছিল। মাহিন্দ্রাসহ কয়েকটি গাড়ি টোল আদায়কারীদের কাছে আসার পর থামতে বলা হয়। এ সময় তাঁরা এসব গাড়ি লাশবাহী গাড়ির সঙ্গে বলে জানায়। কিন্তু তখনো লাশবাহী গাড়ি না আসায় টোল দাবি করা হয়। এ নিয়ে নিজেদের মধ্যে ভুল-বোঝাবুঝি হয়েছে। বিষয়টি নিজেদের মধ্যে আপস-নিষ্পত্তি করা হবে বলেও জানান তিনি।

নলছিটি থানার ওসি আতাউর রহমান বলেন, লাশবাহী গাড়িতে টোল আদায় নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা শুনেছি। এ বিষয়ে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি।



সাতদিনের সেরা