kalerkantho

বুধবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ১ ডিসেম্বর ২০২১। ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

জমি অধিগ্রহণে তিন বছর পার

রংপুরে দুটি নতুন সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়

রংপুর অফিস   

২৬ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গতকাল থেকে ভর্তির আবেদন শুরু হয়েছে। এই খবরে খুশি হতে পারছে না রংপুরের শিক্ষার্থীরা। কারণ এই বিভাগীয় শহরে দুটি নতুন সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় চালুর কথা থাকলেও জমি অধিগ্রহণ কাজে পার হয়েছে তিন বছর।

প্রকল্প সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের অক্টোবরে জাতীয় অর্থনীতি পরিষদের (একনেক) সভায় ৯টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্প পাস হয়। এর অধীনে রংপুুরে একটি বালক ও একটি বালিকা বিদ্যালয় রয়েছে। প্রকল্প পাসের পর জমি অধিগ্রহণ ধীরগতির কারণে দরপত্র প্রক্রিয়া এখনো শেষ হয়নি।

মাধ্যমিক শিক্ষা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, নগরীতে দুটি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে রংপুর জিলা স্কুলের বয়স প্রায় ২০০ বছর, আর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের বয়স প্রায় ১০০ বছর। দুটি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ধারণক্ষমতা প্রায় চার হাজার।

এ বিষয়ে রংপুর নগরীর বাসিন্দা ছড়াকার এস এম খলিল বাবু জানান, বেসরকারি বিদ্যালয়ের মাসিক ফি নিম্নবিত্তের সাধ্যের বাইরে। এ কারণে অনেকে সরকারি বিদ্যালয়ের উপর নিভর্রশীল। সেখানে আসন সংখ্যা সীমিত। অনেক শিক্ষার্থী সরকারি সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

রংপুর জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক আবু রায়হান মিজানুর রহমান জানান, ‘তৃতীয় শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষায় ২৪০টি আসনের বিপরীতে প্রতি বছর গড়ে দুই হাজারের বেশি শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এ সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। এই শহরে কমপক্ষে ছয়টি সরকারি স্কুল প্রয়োজন।’

রংপুর বিভাগের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা উপপরিচালক আখতারুজ্জামান বলেন, ‘রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় একটি এবং রংপুর সিটি করপোরেশনে দুটি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় রয়েছে।’

৯টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্পের পরিচালক রায়হানা তসলিম জানান, শ্রীমঙ্গল ও জয়পুরহাটে ভবন তৈরি হয়েছে। তিন মাসের মধ্যে উদ্বোধন হবে। চারটির দরপত্র প্রক্রিয়াধীন (দুটি রংপুরে, ময়মনসিংহ ও রাজশাহীতে একটি করে)। চট্টগ্রামের দুটি ও রাজশাহীর একটির জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়াধীন। তিনি বলেন, ‘জেলা প্রশাসকের (ডিসি) কার্যালয়ের জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া ধীরগতির কারণে নির্মাণকাজ এখনো শুরু করা যায়নি।’

রংপুরের জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শাহনাজ বেগম বলেন, ‘নগরীর উত্তমের পুরনো রেডিও সেন্টারের পাশের জমিতে বালক এবং কামাল কাছনা মৌজার বোতলা এলাকায় বালিকা বিদ্যালয়ের জন্য দুই একর করে জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে।’

প্রকল্প পরিচালকের অভিযোগের বিষয়ে রংপুরের ডিসি আসিব আহসানকে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, ‘এটা নিয়ে উনাদের সঙ্গে আমরা বুঝব। এ বিষয়ে আপনার সঙ্গে কোনো কথা বলব না।’



সাতদিনের সেরা