kalerkantho

শনিবার । ১৫ মাঘ ১৪২৮। ২৯ জানুয়ারি ২০২২। ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ভবনে বোমাসদৃশ বস্তু রেখে চাঁদা দাবি

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি   

২৫ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভবনে বোমাসদৃশ বস্তু রেখে চাঁদা দাবি

টাঙ্গাইলের গোপালপুরে গতকাল রেহেনা বেগমের নির্মাণাধীন বহুতল ভবনে দুর্বৃত্তদের রেখে যাওয়া বোমাসদৃশ্য বস্তু। ছবি : কালের কণ্ঠ

টাঙ্গাইলের গোপালপুরের একটি নির্মাণাধীন বাড়িতে বোমাসদৃশ বস্তু ও চিঠি রেখে লাখ টাকা চাঁদা দাবি করা হয়েছে। বাড়িটির মালিকের সন্তানদের গুলি করে হত্যার হুমকি দেওয়া হয় চিঠিতে। গতকাল বুধবার সকালে গোপালপুর পৌরসভার নন্দনপুর বাজার এলাকায় রাজ্জাক মিয়া লিটুর নির্মাণাধীন বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রাজ্জাক মিয়া লিটু একটি নতুন বাড়ি নির্মাণ করছেন।

বিজ্ঞাপন

পাশেই একটি টিনের ঘরে লিটুর মা রেহেনা পারভীন বসবাস করেন। বুধবার সকালে রেহেনা পারভীন নির্মাণাধীন বাড়ির সামনে একটি বোমাসদৃশ বস্তু দেখতে পান। এরপর থাকার ঘরের সামনে পান দুটি চিঠি।

চিঠিতে লেখা, তাঁর ছেলে যে ভবন নির্মাণ করছেন তাতে এক লাখ টাকা চাঁদা ধার্য করা হয়েছে। না দিলে বা বিষয়টি প্রশাসনকে জানালে টাইম বোমাটি রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে বিস্ফোরণ ও বাসার মালিকের ছেলেকে গুলি করে হত্যা করা হবে। নির্দিষ্ট জায়গায় টাকা পৌঁছে না দিলে রাত ১২টার পর বিস্ফোরণ ঘটানো হবে বলেও উল্লেখ করা হয় চিঠিতে।

বাড়িটির মালিকের আত্মীয় রেজাউল করিম বলেন, বিষয়টি পৌর মেয়রকে জানানো হয়েছে। পরে পুলিশ এসে বাড়িটি ঘিরে রাখে। কিশোর গ্যাং অথবা মাদকসেবীরা এ কাজ করতে পারে।

গোপালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মামুন ভূঁইয়া বুধবার বিকেলে বলেন, ‘খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে বাড়িটি ঘিরে রাখা হয়েছে। বস্তুটি বোমা নাকি অন্য কিছু তা বলা যাচ্ছে না। ঢাকা থেকে বোম ডিসপোজাল টিম আসার পর কাজ শুরু হবে। ’



সাতদিনের সেরা