kalerkantho

রবিবার । ৯ মাঘ ১৪২৮। ২৩ জানুয়ারি ২০২২। ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

মোংলা-পায়রার মাঝে ফেরি

♦ বলেশ্বর নদে ফেরি উদ্বোধন কাল
♦ দুই পারে খুশির জোয়ার

পিরোজপুর (আঞ্চলিক) ও শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

৯ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



খুশির বন্যা বইছে বলেশ্বর নদের দুই পারে। স্বাধীনতার ৫০ বছর পর স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে নদের দুই তীরের মানুষের। আগামীকাল বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে চলাচল করবে ফেরি। পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার মাছুয়া ও বাগেরহাটের শরণখোলার রায়েন্দা ঘাটে পন্টুন স্থাপনের কাজও সম্পন্ন হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বাগেরহাট-৪ (শরণখোলা-মোরেলগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য আমিরুল আলম মিলন ও পিরোজপুর-৩ (মঠবাড়িয়া) আসনের সংসদ সদস্য রুস্তম আলী ফরাজী দুই তীরে আগামীকাল সকাল ১১টায় যৌথভাবে ফেরি চলাচল উদ্বোধন করবেন। ফেরি চালু হলে মোংলা ও পায়রা বন্দরের মধ্যে অন্তত ৯০ কিলোমিটার দূরত্ব কমে আসবে। এরই মধ্যে মাছুয়া ঘাটের সংযোগ সড়কের কাজ ও রায়েন্দা ঘাটের সংযোগ সড়কের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। বাগেরহাট এবং পিরোজপুর জেলার সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) এই কাজ বাস্তবায়ন করছে।

স্থানীয়রা জানায়, বলেশ্বর নদের দুই পারের মাছুয়া ও রায়েন্দা খেয়াঘাট যুগ যুগ ধরে ‘জুলুুমের ঘাট’ হিসেবে পরিচিত। প্রায় আড়াই কিলোমিটার এই নদটি পার হতে একজন যাত্রীকে ৫০০ টাকা পর্যন্ত গুনতে হয়েছে। হাতে বহনযোগ্য ব্যাগ, এমনকি হাঁস-মুরগিরও টোল দিতে হয়েছে ঘাটে। পান থেকে চুন খসলেই ইজারাদারদের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছে বহু মানুষ। নিয়মিত যাত্রীভাড়া ছিল ১৫০-২০০ টাকা। তবে ফেরি চলাচল শুরু হলে সেই দুর্ভোগ আর জুলুমের হাত থেকে মুক্তি পাবে দুই পারের যাত্রীরা। একই সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলে সড়ক যোগাযোগের ক্ষেত্রে এক নতুন দিগন্তের সূচনা হবে।

বলেশ্বর নদ দিয়ে একসময় বড় বড় জাহাজ চলাচল করত। ঢাকা, খুলনাগামী যাত্রীবাহী দুইতলাবিশিষ্ট লঞ্চ রায়েন্দা ঘাটে ভিড়ত। এখনো মাছুয়া ঘাটে স্টিমার ভেড়ে। তবে নদের মাঝখানসহ বিভিন্ন অংশে রয়েছে অসংখ্য ডুবোচর। ভাটির সময় আড়াআড়ি কোনো ভারী নৌযান চলতে পারে না, ডুবোচরে আটকে যায়। জোয়ারের অপেক্ষায় থাকতে হয় তখন।

বাগেরহাটের সড়ক ও জনপথ বিভাগের (সওজ) নির্বাহী প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দিন বলেন, ‘বলেশ্বরের এই ফেরির কারণে পায়রা থেকে মোংলা সমুদ্র বন্দরের দূরত্ব ৮০ থেকে ৯০ কিলোমিটার কমে আসবে। ’

বাগেরহাট-৪ আসনের সংসদ সদস্য আমিরুল আলম মিলন বলেন, এই ফেরি দক্ষিণাঞ্চলের অর্থনৈতিক উন্নয়নেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। ’

এ ব্যাপারে পিরোজপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য রুস্তম আলী ফরাজী বলেন, ‘বলেশ্বর নদে ফেরি চালুর মাধ্যমে পিরোজপুর, বরগুনা, বাগেরহাট, মোংলা ও খুলনার সঙ্গে সেতুবন্ধ তৈরি হবে। ’



সাতদিনের সেরা