kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

পীরগঞ্জে খাসজমি দখলে আ. লীগের দুই নেতা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে শতকোটি টাকা মূল্যের সরকারি হাটের জমি দখল করে বহুতল ভবনের নির্মাণকাজ শুরু করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমদাদুল হক ও সাধারণ সম্পাদক রেজওয়ানুল হক বিপ্লবের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দখল ঠেকাতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হলেও কাজ হচ্ছে না।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পৌর শহরের প্রাণকেন্দ্র রঘুনাথপুর মৌজায় (ঢাকাইয়াপট্টি) পেরিফেরিভুক্ত চৌরাস্তা হাটের উত্তর-পূর্বাংশে অবৈধভাবে পাকা স্থাপনা নির্মাণের কাজ করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি ইমদাদুল হক, সাধারণ সম্পাদক রেজওয়ানুল হক বিপ্লবসহ কয়েকজন ব্যক্তি। নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই সরকারি জমিতে তাঁরা ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনসহ আরসিসি পিলার নির্মাণের কাজ করছেন। স্থানীয়রা এসব দেখে হতবাক হলেও প্রভাবশালী ওই দুই নেতার ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না। বিষয়টি নজরে এলে দখল ঠেকাতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন জেলা প্রশাসক মাহবুবুর রহমান। কিন্তু উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দখল ঠেকাতে তেমন কোনো তৎপরতা লক্ষ করা যাচ্ছে না।

এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজওয়ানুল হক বিপ্লব বলেন, এখানে ২০ বছর ধরে বসবাস করছেন তিনি। এখন পুরনো ভবন ভেঙে পাকা বাড়ি নির্মাণ করছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি ইমদাদুল হক বলেন, হাটের জমি দখল করা হচ্ছে না। এমদাদুল নামের এক ব্যক্তি সেখানে জমি কিনে নিয়ে এখন সীমানাপ্রাচীর নির্মাণ করছেন।

পৌর মেয়র ইকরামুল হক বলেন, কাজ বন্ধ করার কথা বলেও কোনো লাভ হচ্ছে না। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, ‘কাজ বন্ধ করতে আমরা চেষ্টা করছি।’ জেলা প্রশাসক মাহাবুবুর রহমান বলেন, ‘ইউএনও সাহেবকে কাজ বন্ধ করতে বলেছি। কেন হয়নি—তা কথা বলে দেখছি।’



সাতদিনের সেরা