kalerkantho

বুধবার । ১১ কার্তিক ১৪২৮। ২৭ অক্টোবর ২০২১। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ভুয়া ওয়ারিশ সনদ দেওয়ায় জেলে চেয়ারম্যান

পঞ্চগড় প্রতিনিধি   

১৪ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পঞ্চগড়ে ভুয়া ওয়ারিশ সনদ দেওয়ার অভিযোগে এক ব্যক্তির করা মামলায় সদর উপজেলার হাঁড়িভাসা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাইয়েদ নূর-ই-আলমকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

ওই মামলায় জামিন নিতে গত মঙ্গলবার পঞ্চগড় চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হলে বিচারক হুমায়ুন কবির সরকার তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাঁড়িভাসা ইউনিয়নের গাড়াতিপাড়া এলাকার কালু মিয়ার সঙ্গে জমি নিয়ে প্রতিবেশী সোহরাব আলী (৩৫), সুরমান আলী (৩২), মকবুল হোসেন (৫২) ও সাদ্দাম হোসেনের (২২) দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল।

২০২০ সালে কালু মিয়ার প্রায় এক একর জমি দখল করে নেন তাঁরা। এই ঘটনায় কালু মিয়া জমি উদ্ধারে আদালতে একটি মামলা করেন। এর মধ্যেই আসামিরা হাঁড়িভাসা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাইয়েন নূর-ই-আলমের সহযোগিতায় কালু মিয়াকে মৃত দেখিয়ে ভুয়া ওয়ারিশ সনদ নেন।

পরে বিষয়টি জানতে পেরে গত ২৭ সেপ্টেম্বর সোহরাব আলী, সুরমান আলী, মকবুল হোসেন, সাদ্দাম হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান ও দুই ইউপি সদস্যকে আসামি করে আদালতে মামলা করেন কালু মিয়া। ওই মামলায় গত মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন সাত আসামি। আদালত শুনানি শেষে মকবুল হোসেন ও ইউপি চেয়ারম্যান সাইয়েদ নূর-ই-আলমকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন এবং অন্য পাঁচ আসামির জামিন মঞ্জুর করেন।



সাতদিনের সেরা