kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ কার্তিক ১৪২৮। ২৮ অক্টোবর ২০২১। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দশম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা

সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলায় দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের পর শ্বাস রোধ করে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার কিছু আগে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার কথা বলে মেয়েটি বাড়ি থেকে বের হয়। রাতে বাড়ি ফেরেনি। গতকাল শুক্রবার সকালে গ্রামবাসী পরিত্যক্ত একটি বাড়ির সবজিবাগানে তার বিবস্ত্র লাশ পড়ে থাকতে দেখে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

নিহতের বাবা জানান, করোনায় লকডাউনে স্কুল ছুটি থাকায় প্রতিবেশী শিবু মণ্ডলের ছেলে পার্থ মণ্ডলের সঙ্গে মেয়েটি প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে তিনি মেয়েকে শাসন করাসহ তার চলাফেরায় নজরদারি করতেন। সম্প্রতি বিদ্যালয় খুললে মেয়ে শিক্ষকের কাছে বিকেলে প্রাইভেট পড়ত। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে মেয়েটি প্রাইভেট পড়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। গভীর রাত পর্যন্ত কয়েক স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও না পেয়ে সকালে থানায় ডায়েরি করবেন বলে রাতে ঘুমিয়ে পড়েন তিনি। সকালে গ্রামবাসীর কাছে মেয়ের মৃত্যুর বিষয়টি জানতে পারেন। তিনি ধারণা করছেন, বখাটে পার্থই তাঁর মেয়েকে দেখা করার কথা বলে মোবাইলের মাধ্যমে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের পর হত্যা করেছে।

প্রতিবেশীরা জানায়, প্রথমে রাজি না হওয়ায় বিয়ের প্রলোভনে পরিবারের অজান্তে মেয়েটির সঙ্গে পার্থর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পার্থ গোপনে তাকে মোবাইল ফোনসেটও কিনে দেয়। বাড়ির লোকজনের সামনে মেয়েটি সেই ফোন ব্যবহার করত না।

পার্থর পরিবারের সবাই গাঢাকা দেওয়ায় কারো বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

দেবহাটা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফরিদ আহমেদ বলেন, ‘নিহতের মুখ, বুক ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন আছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।’



সাতদিনের সেরা