kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩ কার্তিক ১৪২৮। ১৯ অক্টোবর ২০২১। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মাদরাসায় তিন শিশুর পায়ে শিকল!

সুপারসহ গ্রেপ্তার ২

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



আরমান, জাহেদ ও শহিদুল। তিনজনই লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জের দারুল কোরআন এবতেদায়ি মাদরাসার নাজেরা বিভাগের ছাত্র। কয়েক দিন ধরে কারণে-অকারণে মাদরাসার ভেতর ওদের পায়ে শিকল পরিয়ে রাখা হচ্ছিল বলে অভিযোগ। এ অবস্থায় পড়াশোনা করতেও বাধ্য করা হচ্ছিল। বিষয়টি জানাজানি হলে গত শুক্রবার রাতে আরমানের নানি পারভিন আক্তার থানায় মামলা করেন। পরদিন শনিবার সকালে পানপাড়া বাজার থেকে মাদরাসার দুই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। দুপুরে তাঁদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মাদরাসার সুপার মো. শহিদুল ইসলাম ও সহকারী শিক্ষক মো. আশেক এলাহী তারেক।

এ বিষয়ে মামলার বাদী পারভিন বলেন, ‘আমরা শিশুদের মাদরাসায় পাঠাই পড়ার জন্য। কিন্তু তাদের পায়ে শিকল বেঁধে রাখায় তারা মানসিক ও শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ে। আমি অভিযুক্তদের বিচার চাই।’

তবে মাদরাসার সুপার শহিদুলের দাবি, তাঁরা ষড়যন্ত্রের শিকার। পাশেই নতুন মাদরাসা হচ্ছে। এ কারণে কেউ কেউ অপপ্রচার চালাচ্ছেন।



সাতদিনের সেরা